অন্যকে সন্তুষ্ট করার চেয়ে, নিজের কর্ম করুন!

রাতের বেলা এক দোকানদার নিজের দোকান বন্ধই করতে যাচ্ছিল, এমন সময় একটি কুকুর দোকানে আসল।
কুকুরের মুখে একটা বাজার করার ব্যাগ ছিল, যার মধ্যে জিনিষের লিষ্ট আর টাকা ছিল।
দোকানদার টাকা নিয়ে জিনিষপত্র ব্যাগে ভরে দিল।
কুকুর ব্যাগ মুখে উঠিয়ে নিল আর চলে যাচ্ছিল।
দোকানদার আশ্চর্যান্বিত হয়ে কুকুরের পিছে পিছে গেল এটা দেখার জন্য যে, এতো সমঝদার কুকুরের মালিক কে?

কুকুর বাস স্টপে দাঁড়িয়েছিল, একটা বাস এলো আর কুকুর এতে চড়ে গেল।
কন্ডাক্টরের কাছে আসতেই কুকুর ঘাড় বাড়িয়ে দিল, তার গলার বেল্টে টাকা আর ঠিকানা লিখা ছিল।
কন্ডাক্টরও টাকা নিয়ে টিকিট কুকুরের গলার বেল্টে রেখে দিল।
নিজের স্টপ আসতেই কুকুর সামনের দরজার সামনে এগিয়ে এলো আর লেজ নাড়িয়ে কন্ডাক্টরকে ইশারা দিল আর বাস থামতেই নেমে চলতে আরম্ভ করল।
দোকানদারও পিছে পিছে চলছিল।

কুকুর ঘরের সামনে এসে নিজের পা দিয়ে দরজায় দুই তিনবার নক করল।
ভেতর থেকে তার মালিক এল আর লাঠি দিয়ে কুকুরের পিঠে কয়েক ঘাঁ বসিয়ে দিল।
দোকানদার আরো আশ্চর্যান্বিত হয়ে ঘরের মালিককে এর কারন জিজ্ঞেস করল?
মালিক বলল. “শালা আমার কাঁচা ঘুমটা ভেঙ্গে দিয়েছে, চাবি সাথে নিয়ে যেতে পারেনি গাধাটা”

জীবনেরও এই একই সত্য!
আপনার কাছ থেকেও মানুষের আশার কোন অন্ত নেই।
যেখানেই আপনার সামান্যতম ভূল হল কি না হল, সেখানেই মানুষ আপনার দোষ বের করে নেবে আর বিগত সকল ভালোগুলোকে ভূলে যায়!

এইজন্য নিজের কর্ম করে চলুন, মানুষ কখনো সন্তুষ্ট হবে না।।

তথ্যসুত্র: ইন্টারনেট।

SHARE