1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

অ্যান্ড্রয়েডের বিকল্প আনছে গুগল!

আপনার পছন্দের অ্যান্ড্রয়েডচালিত স্মার্টফোনটির জন্য বিকল্প কোনো অপারেটিং সিস্টেমের (ওএস) কথা ভাবতে পারেন? হয়তো হ্যাঁ কিংবা না। তবে গুগল অ্যান্ড্রয়েড ও ক্রোমের বিকল্প ওএস উন্নয়নে কাজ করছে। ‘ফুচসিয়া’ নামে নতুন এ অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড ও ক্রোমের বিকল্প হিসেবে বিভিন্ন ধরনের ডিভাইসে ব্যবহার হবে। খবর ইয়াহু টেক।

বৈশ্বিক মোবাইল ডিভাইস ওএস বাজারে অ্যান্ড্রয়েড দিয়ে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করে আছে গুগল। শুধু মোবাইল ডিভাইস নয়, স্মার্টহোম, স্মার্ট ঘড়ি, স্বয়ংক্রিয় গাড়িসহ বিভিন্ন ধরনের গ্যাজেটে নিরবচ্ছিন্নভাবে ব্যবহার হচ্ছে অ্যান্ড্রয়েড। চলতি বছর যত স্মার্টফোন বিক্রি হবে, তার ৮৮ শতাংশই অ্যান্ড্রয়েডচালিত হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

গ্রাহকরা জনপ্রিয় এ অপারেটিং সিস্টেমটির বিকল্প হিসেবে সহজে যাতে ফুচসিয়া ব্যবহার করতে পারেন, সেজন্য সব ধরনের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ সমর্থন সুবিধা থাকবে নতুন অপারেটিং সিস্টেমটিতে।

শুধু ভবিষ্যৎ কম্পিউটিংয়ের জন্য নতুন অপারেটিং সিস্টেমই উন্নয়ন করছে না গুগল। একই সঙ্গে নতুন একটি কোডিং ইঞ্জিন নিয়ে কাজ করছে, যা ব্যবহার করে ডেভেলপাররা খুব সহজে আইওএসসহ যেকোনো প্লাটফর্মের জন্য প্রয়োজনীয় অ্যাপ উন্নয়ন এবং কাজে লাগাতে পারবেন।

অবশ্য একই স্থানে অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস প্লাটফর্মের অ্যাপ উন্নয়নের সুবিধা দিতে এরই মধ্যে একটি কোডিং ইঞ্জিনের বেটা সংস্করণ চালু করেছে গুগল। ‘ফ্লাটার’ নামে এ কোডিং ইঞ্জিনের গ্রাহক সংস্করণ শিগগিরই উন্মোচন করা হতে পারে।

কেন অ্যান্ড্রয়েড ও ক্রোম ওএসের পাশাপাশি নতুন কোডিং ইঞ্জিন নিয়ে কাজ করছে গুগল। মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম বাজারে অ্যান্ড্রয়েডের জনপ্রিয়তা তো একটুও কমেনি।

বিশ্লেষকদের মতে, বিশ্বব্যাপী অ্যান্ড্রয়েডপ্রেমীর কমতি নেই। তবে অপারেটিং সিস্টেমটির বিভিন্ন দিক নিয়ে বিতর্কেরও শেষ নেই। হরহামেশাই অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের তথ্য বেহাতের ঘটনা ঘটছে। গ্রাহক তথ্যের নিরাপত্তার ক্ষেত্রে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে অ্যাপলের আইওএস। চলতি বছর অ্যান্ড্রয়েডের কারণে ইউরোপীয় ইউনিয়নের ৫০৬ কোটি ডলার জরিমানার মুখে পড়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

কেন এ রেকর্ড পরিমাণ জরিমানা? বহু ব্যবহূত মোবাইল অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েডের সহায়তায় দীর্ঘদিন ধরে বাজার প্রতিযোগিতায় এগিয়ে থাকতে অন্যায্য সুবিধা নিয়ে আসছে অ্যালফাবেট ইনকরপোরেশন নিয়ন্ত্রিত গুগল।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের কম্পিটিশন কমিশনে করা এমন একটি অ্যান্টি-ট্রাস্ট মামলার রায়ে এ রেকর্ড পরিমাণ জরিমানা করা হয়। অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস নির্মাতাদের ওপর অবৈধ কিছু শর্ত আরোপ করে রেখেছে গুগল। যে কারণে ডিভাইস নির্মাতারা প্রি-ইনস্টল সফটওয়্যারসহ অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইস সরবরাহে বাধ্য হচ্ছে।

গুগল অ্যান্ড্রয়েড ওএসে যদি নিজেদের অ্যাপগুলো প্রি-ইনস্টল না রাখে, তাহলে তা অ্যান্ড্রয়েড প্লাটফর্মের বিনামূল্যের ব্যবসা মডেলকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে। যে কারণে ওপেন সোর্স অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড অদূর ভবিষ্যতে বিনামূল্যে না-ও মিলতে পারে বলে এরই মধ্যে সতর্ক করেছে গুগল।

অ্যান্ড্রয়েডের জন্য মূল্য পরিশোধ করতে হলে কারা ক্ষতিগ্রস্ত হবে? বলা হচ্ছে, অ্যান্ড্রয়েড একটি ওপেন সোর্স অপারেটিং সিস্টেম প্লাটফর্ম। হার্ডওয়্যার নির্মাতা এ সফটওয়্যার বিনামূল্যে ব্যবহারের সুযোগ পাচ্ছে, যা স্মার্টফোন নির্মাতাদের মধ্যে প্রতিযোগিতা বাড়িয়েছে। অ্যান্ড্রয়েডের সুবাদে কম মূল্যে স্মার্টফোন ব্যবহারের সুযোগ পাচ্ছে বহু মানুষ।

বেশকিছু ডিভাইস নির্মাতা অ্যান্ড্রয়েডের বিভিন্ন সংস্করণের ওপর ভিত্তি করে তৈরি নিজস্ব অপারেটিং সিস্টেমচালিত ডিভাইস সরবরাহ করছে, যা তাদের ব্যবসায় নতুন মাত্রা যোগ করেছে। গুগল বিনামূল্যের অ্যান্ড্রয়েড দেয়া বন্ধ করলে ডিভাইস নির্মাতাদের ব্যবসায় সুযোগ সীমিত হয়ে আসবে।

বিভিন্ন দিক বিবেচনায় গোপনে অ্যান্ড্রয়েডের বিকল্প উন্নয়নে কাজ করছে গুগল, যা অ্যান্ড্রয়েডের স্থান দখলে নেবে। দুই থেকে তিন বছর ধরে প্রতিষ্ঠানটির শতাধিক সফটওয়্যার প্রকৌশলীর একটি দল নতুন অপারেটিং সিস্টেম উন্নয়নে কাজ করছেন। ধারণা করা হচ্ছে, অ্যান্ড্রয়েডের জন্য শিগগিরই মূল্য পরিশোধ করতে হতে পারে, নতুন অপারেটিং সিস্টেম এবং কোডিং ইঞ্জিন উন্নয়নের কার্যক্রম তারই ইঙ্গিত।

More News Of This Category