1. editor@islaminews.com : editorpost :
  2. jashimsarkar@gmail.com : jassemadmin :

আর বিটুমিন আমদানী করতে হবে না

দেশের চাহিদা মিটিয়ে রফতানির মাধ্যমে অর্থ সাশ্রয় বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনের লক্ষ্যে যাত্রা করেছে সর্বাধুনিক প্রযুক্তিসম্পন্ন বসুন্ধরা বিটুমিন প্লান্ট। এটিই দেশের প্রথম কোনো বেসরকারি বিটুমিন প্লান্ট। সড়ক নির্মাণে উন্নত বিটুমিনের জোগান দিতে ‘রোড টু দ্য ফিউচার’ স্লোগানে প্রকল্পটি নিয়ে এসেছে দেশের অন্যতম বৃহৎ শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপ। ২০২১ সালের মধ্যে বছরে নয় লাখ টন উৎপাদন সক্ষমতায় যেতে চায় প্রতিষ্ঠানটি।

কেরানীগঞ্জের পানগাঁওয়ে প্লান্টটির উদ্বোধন করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এবং বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। উদ্বোধন পর পরই প্লান্ট থেকে বিটুমিন উৎপাদন শুরু হয়। ‘বসুন্ধরা বিটুমিন প্লান্ট’ নির্মাণ ও পরিচালনা করছে গ্রুপের অঙ্গপ্রতিষ্ঠান বসুন্ধরা অয়েল অ্যান্ড গ্যাস কোম্পানি লিমিটেড। বসুন্ধরা গ্রুপের চেয়ারম্যান আহমেদ আকবর

সোবহান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীরসহ বসুন্ধরা গ্রুপের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেন, বিটুমিন নিয়ে আমরা অনেক যুদ্ধ করেছি। আর বিটুমিন আমদানী করতে হবে না। প্রধানমন্ত্রী সড়ক নিয়ে সবসময় উদ্বিগ্ন।

বেহাল সড়কের কথা একনেক সভায় উনি বার বার বলেছেন। আমাদের দেশের আবহাওয়ার সঙ্গে খাপ খায় এমন বিটুমিন কখনো আমরা পাইনি। সামান্য বৃষ্টি হলেই সড়কের বিটুমিন নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। তাছাড়া নানা কারণে গুণগত উত্কর্ষ ধরে রাখতে পারতাম না। যে বিটুমিন ব্যবহার করতাম, তা দিয়ে আমাদের রাস্তাগুলো টেকসই হতো না।

আজ আমরা আনন্দিত, বসুন্ধরা সেই কাজটি করে দিচ্ছে। বসুন্ধরার প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ। আমাদের আর বাইরে থেকে বিটুমিন আমদানি করতে হবে না। এটা বাংলাদেশের জন্য বড় অর্জন। বসুন্ধরা বিটুমিন শুধু দেশেরই চাহিদা পূরণ করবে না, বরং বিদেশে রফতানি করা যাবে। আমি বলতে পারি নিঃসন্দেহে এটা একটি সাহসী উদ্যোগ।

বসুন্ধরা বিটুমিন কারখানাটি স্টেট অব আর্ট অবকাঠামো হিসেবে গড়ে তোলা হয়েছে। যেখানে রয়েছে উন্নত মানের সব সেবা ও সুযোগ-সুবিধা। ক্রেতাকে চাহিদা অনুয়ায়ী সময়মতো ড্রাম বা বাল্ক আকারে বিটুমিন সরবরাহের জন্য কারখানা এলাকায় দক্ষ ও মানসম্পন্ন সুযোগ-সুবিধার অবকাঠামোও গড়ে তোলা হয়েছে।

নতুন কারখানাটি চাহিদা অনুযায়ী উন্নত গ্রেডের বিটুমিন উৎপাদন করবে। কাটব্যাক, এমালসিফাইড, অক্সিডাইজড ও পলিমারসহ (এসবিএস, রাবার পাউডার) ক্রেতার চাহিদা অনুযায়ী উৎপাদন ও সরবরাহে সক্ষম এ প্লান্ট। প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, আজ একটি ঐতিহাসিক দিন। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী পালন করতে যাচ্ছি আমরা।

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার পথে বেসরকারি খাত এগিয়ে যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার পিতার স্বপ্ন পূরণ করতে যাচ্ছেন। সে স্বপ্ন পূরণে হাজারো মানুষের কর্মসংস্থানের জোগান দিতে দেশে যারা এগিয়ে এসেছেন, তাদের সম্মুখভাগে রয়েছে এ বসুন্ধরা গ্রুপ। জানা গেছে, দেশে বর্তমানে বিটুমিনের চাহিদা প্রায় পাঁচ লাখ টন, যার ৯০ শতাংশই আমদানি করতে হয়।

উন্নয়ন কর্মকাণ্ড সম্প্রসারিত হওয়ায় প্রতি বছর এর চাহিদা ১০-১৫ শতাংশ হারে বাড়ছে। বর্তমানে বংলাদেশ সড়ক ও জনপদ (সওজ) বিভাগের অধীনে প্রায় ২২ হাজার কিলোমিটার সড়ক ও মহাসড়ক রয়েছে, যার বড় অংশই সম্প্রসারিত হচ্ছে।

সারা দেশে স্থানীয় সরকারের অধীনে প্রায় ৩ লাখ ৫৪ হাজার কিলোমিটার রাস্তা হয়েছে, যার মধ্যে প্রায় ১ লাখ ৫ হাজার কিলোমিটার পিচঢালা পাকা রাস্তা। সরকার ভবিষ্যতে স্থানীয় সরকার বিভাগের সব রাস্তাই পাকা করার পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। ফলে ভবিষ্যতে দেশে বিটুমিনের চাহিদা বাড়বে। তথ্যসূত্র: বণিক বার্তা।

More News Of This Category