1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

ইউএস বাংলার বহরে যুক্ত হচ্ছে আরও ৫ উড়োজাহাজ!

ইউএস বাংলা এয়ারলাইনসের বহরে থাকা সাতটি উড়োজাহাজ সাতটি দেশে চলাচল করছে। আগামী বছরের শুরুতে এই বহরে আরও পাঁচটি উড়োজাহাজ যোগ হচ্ছে।

ইউএস বাংলা সূত্র জানায়, ২০১৪ সালের ১৭ জুলাই ইউএস বাংলার এয়ারলাইনসের উড়োজাহাজ ঢাকা-যশোর রুটে প্রথমে যাত্রা শুরু করে। পর্যায়ক্রমে উড়োজাহাজের সংখ্যা বাড়তে থাকে এবং তা মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, মাসকট, দোহা, চীনের গুয়াংজু এবং থাইল্যান্ডের ব্যাংককে চলাচল করছে।

ইউএস বাংলার উড়োজাহাজগুলো চার বছরে দেশে-বিদেশে ৫১ হাজার বার চলেছে। আগামী বছরের শুরুতে ইউএস বাংলা বহরে পাঁচটি উড়োজাহাজ যুক্ত হওয়ার পর তা ভারতের চেন্নাই, কলম্বো ও মালে রুটে চলবে।

ইউএস বাংলা এয়ারলাইনসের মার্কেটিং সাপোর্ট অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনসের বিভাগের মহাব্যবস্থাপক মো. কামরুল ইসলাম বলেন, নতুন বছরের শুরুতে ইউএস বাংলা এয়ারলাইনসের বহরে আরও পাঁচটি উড়োজাহাজ যুক্ত করার পরিকল্পনা রয়েছে।

এগুলো ভারতের চেন্নাই, শ্রীলঙ্কার কলম্বো ও মালদ্বীপের মালে রুটে চলবে। তিনি বলেন, ইউএস বাংলা উড্ডয়নের আগে তিন স্তরের নিরাপত্তাব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। উড়োজাহাজ চালু হওয়ার আগে কোনো নিরাপত্তা ঘাটতি দেখা দিলে পাইলট সংশ্লিষ্ট উড়োজাহাজ পরিচালনা করেন না।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, উড়োজাহাজ গন্তব্যের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়ার আগে সেটি দেশি-বিদেশি প্রকৌশলী বিশেষজ্ঞরা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেন।

ইউএস বাংলার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইমরান আসিফ সাংবাদিকদের বলেন, ৪০ মিনিট ধরে পূর্ণাঙ্গ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পর প্রকৌশলীরা উড়োজাহাজটি পাইলটকে বুঝিয়ে দেন।

ফ্লাইট অপারেশন বিভাগের পরিচালক মশিউল আজম বলেন, উড়োজাহাজে তিনটি হাইড্রোলিক সিস্টেম আছে। উড্ডয়নের পর মেইন সিস্টেম অকার্যকর হলে হাইড্রোলিক সিস্টেম কাজ করবে। এতে উড়োজাহাজে দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা থাকে না।

More News Of This Category