1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

ইউটিউবের মত ফেসবুকে ভিডিও আপলোড করে আয়ের সুযোগ!

বিশ্বজুড়ে সবার জন্য ভিডিও সেবা ‘ওয়াচ’ চালু করল ফেসবুক। যুক্তরাষ্ট্রে এক বছর আগেই ইউটিউবকে টেক্কা দিতে এই ভিডিও সেবা নিয়ে এসেছে ফেসবুক। এতে ইউটিউবের মতো বিভিন্ন ভিডিও দেখা যাবে। বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

ফেসবুকের ভিডিও বিভাগের প্রধান ফিডজি সিমো বলেছেন, ওয়াচ ব্যবহার বেড়েই চলেছে। ভিডিও দেখাটা সামাজিক যোগাযোগ কার্যক্রমের অংশ—এ ধারণা থেকেই ওয়াচ তৈরি করা হয়েছে। সিমো বলেন, প্রতি মাসে যুক্তরাষ্ট্রের পাঁচ কোটি মানুষ ওয়াচে ভিডিও দেখেন এবং কমপক্ষে এক মিনিট করে থাকেন।

২০১৮ সালের শুরুতে এ সেবা চালু করার পর থেকে এ সাইটে সময় কাটানোর হার ১৪ শতাংশ পর্যন্ত বেড়েছে। সিমো জানান, ওয়াচ ব্যবহার করে বন্ধু, ভক্ত বা ভিডিও নির্মাতার সঙ্গে কথোপকথন চালানো যাবে।

এ সেবার মাধ্যমে অর্থ আয়ের সুবিধাও পাবেন ভিডিও নির্মাতারা। ফেসবুক এতে অ্যাড ব্রেকস নামের বিজ্ঞাপন সুবিধা চালু করবে। শুরুতে এটি যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি যুক্তরাজ্য, আয়ারল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডে শুরু হচ্ছে। এরপর অন্য দেশে এ সুবিধা চালু হবে।

ফেসবুকের কর্মকর্তা বলেন, ‘ফেসবুকের স্বয়ংক্রিয় বিজ্ঞাপন সুবিধার মাধ্যমে ওয়াচ প্ল্যাটফর্ম থেকে বলার মতো মুনাফা করতে পারছেন ভিডিও প্রকাশকেরা। এখানে বিভিন্ন ফিচার শো করছেন তাঁরা। আমাদের কমিউনিটি ও সহযোগীদের জন্য ভালো বিজ্ঞাপন অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করতে কঠোর পরিশ্রম ও দীর্ঘ পথ পাড়ি দিতে হয়েছে।’

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলেছে, ওয়াচে ভিডিও নির্মাতারা ৫৫ শতাংশ অর্থ পাবেন। ফেসবুক নেবে ৪৫ শতাংশ। যুক্তরাষ্ট্রের ভিডিও নির্মাতারাও এ সুযোগ পান। অ্যাড ব্রেকে অংশ নিয়ে অর্থ আয় করতে হলে ভিডিও নির্মাতাদের কমপক্ষে তিন মিনিটের ভিডিও তৈরি করতে হবে। দুই মাসে ৩০ হাজার ব্যবহারকারী এক মিনিট করে ভিউ থাকতে হবে। ১০ হাজার ফলোয়ার থাকতে হবে।

সিমো বলেন, যাঁরা অর্থ আয় করতে চান, তাঁদের জন্য আরও নানা উপায় নিয়ে কাজ করছে ফেসবুক। ব্র্যান্ডের কনটেন্ট ও তাদের ফ্যানদের সরাসরি সমর্থন পাওয়ার সাবসক্রিপশন মডেলও থাকবে। ফ্যান সাবসক্রিপশন মডেলটি শিগগিরই চালু হবে।

তথ্যসূত্র: প্রথমআলো ডটকম।

More News Of This Category