1. editor@islaminews.com : editorpost :
  2. jashimsarkar@gmail.com : jassemadmin :
সফলতার গল্প :

ইতালিতে স্থায়ী বাসিন্দা হলে মিলবে বাড়ি ও ১০ হাজার ডলার উপহার

চোখ বন্ধ করে ভাবুন আপনি বসবাস করছেন ইতালিতে ছবির মত সুন্দর একটি গ্রামে। সে জায়গাটির একপাশে আছে ইউরোপের সর্বোচ্চ পর্বত আলপস। আরো আছে ফুলে ফুলে শোভিত চত্বর, তুষারাবৃত পর্বতচূড়া ও চেস্টনাট বাগান। মন চাইলে চলে যেতে পারেন ট্রাকিং করতে আলপসের গ্রান প্যারাডিসো পর্বতে অথবা করতে পারেন আইস স্কেটিং বা কাটতে পারেন সাতার।

এবার বাস্তবে ফিরে আসুন আর ভাবুন এমন কল্পনার বাস্তবরুপ দিতে কি পরিমান অর্থ ব্যয় করতে হতে পারে আপনার। বিস্ময়কর তথ্য হলো উপরের উল্লেখিত ভূপ্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি ইতালির গ্রাম লোকানাতে বসবাসের বিনিময়ে উল্টো বিদেশীদেরকে ১০০০০ হাজার ডলার উপহার প্রদানের ঘোষণা করেছে স্থানীয় মেয়র গিওভান্নি ব্রুনো মাটিয়েট।

শুধু লোকানা নয়, আরো কয়েকটি ইতালিয়ান গ্রামে স্থায়ী বাসিন্দা হলে মিলবে আকর্ষণীয় সব উপহার। যেমন: নামমাত্র মূ্ল্যে বা মাত্র ১ ইউরো (১ ডলারের একটু বেশি) মূল্যে বাড়ি, নতুন শিশুসন্তানের জন্য ১ হাজার ইউরো বোনাস এবং নতুন ব্যবসা শুরু করতে চাইলে ২ হাজার ইউরো সহায়তা।

লোকানা ইতালির উত্তরাঞ্চলের তুরিন শহর থেকে ৪৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। এ গ্রামের খুব কাছেই ফ্রান্স ও সুইজারল্যান্ডের সীমান্ত। এখানে স্থায়ী বাসিন্দা হবার জন্য কর্তৃপক্ষ আকর্ষণীয় অফার ঘোষণা করেছে। তবে এ অফার গ্রহণ করতে হলে কোন শর্ত নেই তা নয়। শর্ত হচ্ছে আপনার বেতন হতে হবে বছরে কমপক্ষে ৬০০০ ইউরো এবং থাকতে হবে একটি শিশু।

মানে নিদিষ্ট বেতনের বাবা-মায়েদের জন্য আকর্ষণীয় এ অফার। আবশ্যক আর যে শর্তটি বিদ্যমান তা হচ্ছে, এ এলাকায় স্থায়ীভাবে বসবাসের মাধ্যমে স্থানীয় কমিউনিটিকে পুর্নগঠিত করতে সাহায্যের প্রতিজ্ঞা করতে হবে। ঘোষিত উপহারের টাকা পাওয়া যাবে তিন বছরের কিস্তিতে।

পরিবর্তিত বিশ্ব পরিস্থিতির কারণে সম্প্রতি আফ্রিকা ও মধ্যপ্রাচ্য থেকে আসা অভিবাসী প্রত্যাশীদের প্রতি ইতালিতে রাজনৈতিক বিরোধীতা রয়েছে। এমন অবস্থাতেও লোকানা ও ইতালির অন্যান্য এলাকায় প্রদানকৃত অফার অনেকটা দ্বিমুখী শোনায়। কেননা তাদের অফারের আওতায় বিশ্বের সব দেশই আছে।

নিদিষ্ট করে কোন দেশ বা এলাকার কথা উল্লেখ করা নেই। অবশ্য প্রাথমিকভাবে ওই অফারটি দেয়া হয়েছিল শুধুমাত্র ইতালিয়ান বা যেসকল বিদেশী ইতোমধ্যে ইতালিতে থাকে তাদেরকে। পরে গ্রাম বাঁচানোর আপ্রাণ প্রচেষ্টা হিসেবে অফারের আওতায় কোন দেশ নিদিষ্ট করা থেকে রিবত থাকা হয়।

প্রশ্ন আসে এমন অস্বাভাবিক অফারের কারণ কি? মূল কারণ হলো অভাব। তবে সে অভাব অন্যকিছুর নয়, মানুষের। লোকানা এলাকাটিতে ভূপ্রাকৃতিক সৌন্দর্য, অর্থসম্পদের অভাব না থাকলে, মানুষের ভীষণ অভাব। ১৯০০ সালের শুরুর দিকে এ গ্রামের জনসংখ্যা ছিল ৭ হাজার। সে সংখ্যা কমতে কমতে এখন তা দাঁড়িয়েছে মাত্র ১হাজার ৫শতে।

অল্প কিছু মানুষ বসবাসের কারণে অধিকাংশ ঘরবাড়ি ফাকা পড়ে থাকে। ধীরে ধীরে এলাকাটি পরিত্যক্ত হবার পথে। নিম্ন জন্মহার ও এলাকার অধিকাংশ মানুষ কাজের সন্ধানে তুরিন শহরে চলে যাবার কারণে এ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। অবস্থা এতই নাজুক যে, ছাত্রের অভাবে স্থানীয় স্কুলটি প্রতি বছর বন্ধ হয়ে যাবার আশঙ্কায় থাকে।

অন্যদিকে লোকানাতে প্রতিবছর ৪০টি মৃত্যুর বিপরীতে মাত্র ১০শিশু জন্মগ্রহণ করে। ইতালির মোটামুটি সর্বত্রই অবস্থা এরকমই। গত ৩০ বছরে দেশটির প্রতি ৪টি কমিউনিটির ১টি ভূতুড়ে শহরে পরিণত হয়েছে। বর্তমানে পুরো ইতালিতে ১৩৯টি গ্রামে বসবাসকারী বাসিন্দার সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে মাত্র ১৫০ এ।

উদ্ভুত পরিস্থিতি সামাল দেবার জন্য বাধ্য হয়ে গ্রামের বাসিন্দা বৃদ্ধির ওই ঘোষণা দেয়া হয়। মেয়র মূলত যুবা ও পেশাজীবী যারা প্রত্যন্ত এলাকায় কাজ করেন অথবা লোকানাতে কাজ করতে আগ্রহী লোকেদের খুঁজছেন বলে জানা যায়। ওই এলাকায় থাকা ডজনেরও বেশি দোকান, বার, রেস্টুরেন্ট, বুটিক হাউস বন্ধ অবস্থায় পড়ে আছে। ওগুলো অপেক্ষায় আছে নতুন বাসিন্দারা এসে তাদেরকে আবার চালু করবে।

এলাকাটি ছোট্ট হলেও যথেষ্ঠ সম্পদশালী। লোকানার আয়ের অন্যতম উৎস হাইড্রোইলেকট্রিক শক্তি উৎপাদন। যা ইতালি সরকারের কাছে বিক্রি করা হয়। লোকানা এলাকা গ্রান প্রারাডিসো পর্বতের পাদদেশে ১ শ ৩২ স্কয়ার কিলোমিটার এলাকা পর্যন্ত বিস্তৃত। এখানকার সতেজ বাতাস আর রয়েছে আউটডোর এক্টিভিটি যেমন আইস-স্কেটিং, মাছ ধরা, ট্রাকিং, সাতার, ফুটবল বা টেনিস খেলার সুযোগ।

এখানকার ঘর-বাড়িগুলো পাথর, কাঠ ব্যবহার করে তৈরি করা। ছাদে ব্যবহার করা হয়েছে টাইল। স্বচ্ছ জলের ধারা উপর রয়েছে পুরনো ব্রিজ। উপত্যাকার এখানে ওখানে ছড়িয়ে আছে চেস্টনাট জঙ্গল, নিসঙ্গ চ্যাপেল, পরিত্যক্ত লজ, ডেইরি ফার্ম, মিল, কপার মাইন। সারা বছর ধরে এখানে স্বাস্থ্যকর জীবনযাত্রা, অসাধারণ খাবার, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

আগেই জেনেছি ইতালিতে লোকানা একমাত্র গ্রাম নয় যেখানে জনসংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে কমে গেছে এবং যে এলাকায় জরুরি ভিত্তিতে জনসংখ্যা বৃদ্ধি করা প্রয়োজন। লোকানার একটু উত্তরে পাইডমন্ট অঞ্চলের একটির রাজ্যের নাম বোরগোমজ্জাভাল্ল। ২০১৯ সাল নাগাদ ওই গ্রামের জনসংখ্যা কমে দাঁড়ায় মাত্র ৩২০ জনে।

গ্রামের মেয়র আলবেটরো পিরেইওনি তার গ্রামে স্থায়ী বাসিন্দা হতে আগ্রহীকে মাত্র এক ইউরোতে পর্বতের ওপরের কটেজের মালিকানা দেবার পাশাপাশি নগদ অর্থ উপহার প্রদানের ঘোষণা দিয়েছেন। ২০১৬ সালে দুটি পাশ্ববর্তী দুটি গ্রাম বাতিল হয়ে যাবার সময় নতুন গ্রাম ‘বোরগোমজ্জাভাল্ল’ এর জন্ম হয়।

বোরগোমজ্জাভাল্ল শব্দের মানে উপত্যাকার মাঝের শহর। নাম থেকে অনুমান করা যায় এলাকারটির ভৌগোলিক অবস্থান। তবে উপত্যাকার মাঝে হবার কারণে সূর্য্যের আলো সর্বদা পাওয়া যাবে না এটাই স্বাভাবিক। তবে কর্তৃপক্ষ এ বাধা দূর করেছেন পাশের পর্বতের গায়ে বিশাল এক আয়না প্রতিস্থাপনের মাধ্যমে যেখানে সূর্যের আলো প্রতিফলিত হয়ে গ্রামে ওপর পড়ে। যার কারণে পুরো দিনই রোদ-ঝলমলে আলোতে পূর্ণ থাকে এ এলাকা।

মেয়র জানান, বিনিয়োগ করার মত যথেষ্ট টাকা তাদের আছে, এখন তাদের দরকার শিশু ও তরুণ জনগোষ্ঠী। আর এ কারণে নতুন জন্ম হওয়া শিশুর জন্য ১ হাজার ইউরো বোনাস এবং যারা এখানে ব্যবসায় শুরু করতে আগ্রহী তাদেরকে শুল্ক নিবন্ধনের জন্য আরো ২ হাজার ইউরো দেওয়ার ঘোষণা দেন মেয়র আলবেটরো। মেয়র আরো জানান, এ এলাকার স্থানীয় শুল্কহার খুব কম এবং ছাত্রছাত্রীদের জন্য গণপবিহনের বিনামূল্যে যাতায়াতের ব্যবস্থা রয়েছে। তথ্যসূত্র: ফরচুন, সিএনএন ও ইনসাইডার

More News Of This Category