1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

ক্ষুদ্র ব্যবসায় সফল উদ্যোক্তা হোসাইন!

অসম্ভবকে সম্ভব করতে ঝুঁকি নিতে পারে তারুণ্য। তরুণ বা নওজোয়ানদের অসাধ্য কিছু নেই। প্রথা ভাঙায় দুঃসাহস দেখাতে পারে তরুণরাই। সময়ের সঙ্গে বদলাচ্ছে এই দেশের উচ্চ শিক্ষিত তরুণ সমাজ। ব্যবসা-বাণিজ্যে এখন উচ্চ শিক্ষিত তরুণদের সংখ্যা বেড়েই চলছে।

তারুণ্যের শক্তি, সাহস আর পরিশ্রমের ফলে ব্যবসায় সাফল্যও পাচ্ছেন তারা। ফলে বদলাচ্ছে দেশের অর্থনীতির আকার। সৃষ্টি হচ্ছে নতুন কর্মসংস্থানের। এভাবেই এগিয়ে যাচ্ছে সম্ভাবনাময় বাংলাদেশ। এমনই এক স্বপ্নবাজ তরুণ হোসাইন আহমদ।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ২০০৮-০৯ শিক্ষাবর্ষে মৌলভীবাজার সরকারি কলেজ থেকে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ে স্নাতক ও ২০১২-১৩ শিক্ষাবর্ষে স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন তিনি। পড়াশুনা শেষ করে চাকরির পেছনে না ঘুরে নিজ থেকে কিছু করার চিন্তা করেন এই তরুণ। সেই থেকে উদ্যোক্তা হওয়ার গল্প শুরু। বছর দু’য়েক আগে নিজ উদ্যোগে জেলা শহরে গড়ে তুলেছেন এমবিএম করপোরেশন।

এই প্রতিষ্ঠানের অধীনে দুগ্ধ খামার, মাছ চাষ, প্রিন্টিং প্রেস, কুরিয়ার সার্ভিস ও ড্রিংকিং ওয়াটারসহ নানা খাতে বিনিয়োগ করা হয়েছে। অল্প দিনেই উদ্যোক্তা হিসেবে সফল হন এই তরুণ। শ্রীমঙ্গলে একটি রিসোর্ট করার পরিকল্পনাও রয়েছে বলে জানালেন এই তরুণ উদ্যোক্তা। ভবিষ্যতে নতুন প্রকল্পে বিনিয়োগ সমপ্রসারিত করার ইচ্ছেও রয়েছে তার।

কুলাউড়া উপজেলার বাদে ভূকশিমইল গ্রামের বাসিন্দা হোসাইন আহমদ বলছেন, পড়াশুনা শেষ করার পর বন্ধুরা যখন চাকরির পেছনে হণ্যে হয়ে ছুটে চলছে, তারপরেও চাকরি পাচ্ছে না, সেই থেকে চাকরির চিন্তা বাদ দেই। তারপরে কুরিয়ার সার্ভিস ও প্রিন্টিং প্রেস দিয়ে ছোট পরিসরে শুরু করি ব্যবসা।

শিক্ষিত তরুণ-তরুণীদের নতুন কিছু চিন্তা করার সময় এসেছে। চাকরি করার প্রবণতা থেকে বেরিয়ে চাকরি দেওয়ার মানসিকতা তৈরি করতে হবে। আর একমাত্র উদ্যোক্তা হওয়ার মাধ্যমেই চাকরি দেওয়া সম্ভব।

দেশের অর্থনীতিতে অবদান রাখার পাশাপাশি কর্মসংস্থানেরও সুযোগ তৈরি করে দিয়েছেন এই উদ্যোক্তা। বিভিন্ন প্রকল্পে অনেক তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করে দিয়েছেন। ফলে বেকারত্ব দূরীকরণেও অবদান রাখছেন এই উদ্যোক্তা। ব্যবসার পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে যুক্ত রয়েছেন হোসাইন আহমদ।

তরুণ উদ্যোক্তা হোসাইন আহমদ বলছিলেন, নিজ থেকে কিছু করার তাগিদ অনুভব করার কারণেই ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছি। যদি দেশের মানুষের কল্যাণ হয়, তাহলেই স্বার্থক হবে এই ক্ষুদ্র প্রয়াস। তরুণদের উদ্দেশে তিনি বলেন, দেশে যেসব উচ্চ শিক্ষিত তরুণ আছেন, তাদের মানসিকতা বদলাতে হবে। চাকরি করবেন না, চাকরি দিবেন এই মানসিকতা সৃষ্টি করতে হবে। ফলে নিজে লাভবান হওয়ার পাশাপাশি দেশও লাভবান হবে।

More News Of This Category