1. uddoktarkhoje@gmail.com : uddoktarkhoje :

গরু মোটাতাজা করনে খাদ্য বাছাইয়ের কৌশল

গরু মোটাতাজাকরণে অনেক সৌখিন খামারি সংযুক্ত হচ্ছে। অনেকেই ধারনা নেই কি কি ধরনের খাদ্য দিলে গরুর জন্য যথেষ্ট। সংক্ষিপ্ত আকারে খাদ্যের মেনু তৈরি না করতে পারলে প্রতিযোগিতার বাজারে টিকে খাকা সম্ভব হবেনা। কিছু কিছু খাদ্যের মেনু বিভিন্ন খামারি প্রচার করে থাকেন।

প্রকাশিত খাদ্যের মেনু নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করলে দেখা যায় একই ধরনের পুষ্টিগুন সম্পন্ন একাধিক খাদ্য ম্যনুতে রয়েছে, এমনও দেখা যায় জগতের গো-খাদ্যের সমুদয় আইটেমের একই খাবার মেনুতে সংযোজন করা হয়েছে। গবাদিপশু বডিওয়েট অনুুযায়ী গো-খাদ্য (দানাদার) দিতে হয়, আদর্শ পরিমাপ প্রতি ১০০ কেজির জন্য ১ থেকে ১.৫ কেজি।

এই নির্দিষ্ট মাত্রায় একই পুষ্টিগুন সম্পন্ন একাধিক দানাদার খাদ্য যদি সংযোজন করা হয় তবে সেটা গরুর দেহে কাজে লাগে নাকি অপচয়ের খাতায় চলে যায় সেটা আমাদের ভাবা দরকার। কিছু মেনু দেখলে মনেহয় গো-খাদ্যের জগতে যত আইটেম রয়েছে তার কোন কিছুই বাদ দেয়নি।

উদাহরণস্বরূপ:১- ভুট্টা ২- গম ৩- গমের ভুষি ৪- সয়ামিল(সয়াবিনের খৈল) ৫- সরিষার খৈল ৬- তিলের খৈল ৭- খেঁসারি ডাল ৮ – বুটের ডাল ৯- মাশকলাই ডাল ১০- এ্যকরের ডাল ১১- রকসল্ট ১২- মিনারেল ব্লক ১৩- লবন ১৪-চিটাগুড় ১৫- ডিবি ভিটামিন

আরো অনেক আইটেম রয়েছে যা বলে শেষ করা যাবেনা, আমি মুল বিষয় অনুধাবণ করতে ১৫ টি আইটেম উল্লেখ করেছি। অনেক খামারির প্রকাশিত ম্যনুতে ১ থেকে ১৫ পজন্ত সবই রয়েছে এবং আরো অতিরিক্ত অনেক আইটেম রয়েছে।

এবার একটু জানার চেষ্টা করুন ১,২,৩ নং খাদ্য গরুর বডিতে কি ধরনের কার্য সম্পাদন করে এবং এই খাদ্যে কি ধরনের পুষ্টিগুণ রয়েছে? আমার মনে হয় আপনি জানার পরে ১,২,৩ নং খাদ্য থেকে আপনার গরুর খাদ্য ম্যনুতে যে কোন একটি আইটেম বেছে নিবেন।

৪,৫,৬ নান্বারের পুষ্টিগুণ ও কার্যক্রম জেনে যে কোন একটি বেছে নিবেন। ৭,৮,৯,১০ নান্বারে পুষ্টিগুণ ও কার্যক্রম জেনে যে কোন একটি বেছে নিবেন। ১১,১২,১৩ নান্বারের পুষ্টিগুন ও কার্যক্রম জেনে যে কোন একটি বেছে নিবেন। তার পরেও যদি আপনার মনে হয় কোথাও কোন প্রকার ঘার্তি বা অভাব রয়ে যাচ্ছে তবে ১৪,১৫ নান্বারের পুষ্টিগুণ ও কার্যক্রম বিবেচনা করে যে কোন একটি অথবা দুটোকেই নির্ধারন করতে পারেন।

সম্ভব হলে চিটাগুড় কে অবশ্যই আপনার গরুর খাদ্যতালিকার ম্যনুতে রাখুন। কাচাঁ ঘাস অথবা শুকনো খড় অবশ্যই খাদ্যের ম্যনুতে রাখতে হবে আঁশযুক্ত খাদ্যের চাহিদা মেটাতে। কোন বেক্তিকে অনুরোধ বা অনুকরণ করতে হবেনা, প্রয়োজনে গুগলের সহায়তা নিন বিভিন্ন গো-খাদ্যের পুষ্টিগুন ও কার্যক্রম বিষয়ে জানতে।

নিজেই তৈরি করে নিন নিজ খামারের গবাদিপশু জন্য সুলভে পুষ্টিকর গো-খাদ্য। একটু লক্ষ করে দেখুন আগে কিন্তুু গ্রামের কৃষক গরুকে শুধু কাচাঁ ঘাস ও খড় এবং ধানের কুড়া খাইয়ে গরুমোটাতাজা করতেন। একটি কথা আমাদের ভুলে গেলে চলবে না, গরুর দেহতে আল্লাহ এমন সিস্টেম দিয়ে রেখেছে যে অতি নিন্মমানের খাবার খেয়েও গরু তার নিজের দেহের চাহিদা মেটাতে পারে।

More News Of This Category