গাছের পাতা ছেঁড়ায় বাংলাদেশিকে লাখ টাকা জরিমানা!

বাংলাদেশে গাছের পাতা ছেঁড়ার অপরাধে বা পথ-ঘাটে থু থু ফেলার অপরাধে কারও কখনও জরিমানা হয়েছে তার নজির নেই। তবে উন্নত দেশগুলোতে চলতে হলে এসব বদভ্যাস ত্যাগ করতে হয়। না হয় তা দূর করতে বাধ্য করা হয়।

গাছের পাতা ছেঁড়া যে এত বড় অপরাধ তা আগে ভাবতেও পারেননি এক বাংলাদেশি! সিঙ্গাপুরে এমন অপরাধে তাকে জরিমানা দিতে হচ্ছে বাংলাদেশি মুদ্রায় লক্ষাধিক টাকা।

সিঙ্গাপুরের বোটানিক গার্ডেনে গাছের পাতা ছেড়ার অপরাধে এক বাংলাদেশিকে নোটিশ পাঠিয়েছে দেশটির দ্যা ন্যাশনাল পার্কস বোর্ড (এনপার্কস)। তবে এনপার্কস বলছে এই মামলায় আপিল করতে পারবেন ওই ব্যক্তি।

সিঙ্গাপুরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়েছে যে একজন বাংলাদেশিকে নোটিশ দেয়া হয়েছে গাছের পাতা ছেড়ার অপরাধে। বলা হচ্ছে, এই অপরাধে তাকে দুই হাজার সিঙ্গাপুর ডলার (১ লাখ ২৩ হাজার টাকা) জরিমানা গুনতে বাধ্য করা হবে। তবে সিঙ্গাপুরের ব্যাক্তিগত তথ্য সুরক্ষা অাইনের কারনে ওই ব্যক্তির নাম প্রকাশ করা হয়নি।

এক বিবৃতিতে বলা হয়, সিঙ্গাপুর বোটানিক গার্ডেনে একজন ব্যক্তিকে সিজিগিয়াম মিট্রিফোলিয়াম (Syzygium myrtifolium tree) গাছ থেকে পাতা ছেড়ার অপরাধে নোটিশ পাঠানো হয়েছে। এই গাছটিকে কেলাত ওয়েল অথবা রেড লিপ ট্রিও বলা হয়।

অপরাধের জন্য বিবৃতিতে বলা হয়, আমরা যখন ওই দর্শনার্থীর সঙ্গে দেখা করে বিস্তারিত কথা বলবো তখন জরিমানার অংক নিয়েও আবার হয়তো আলোচনা করা যাবে। এক্ষেত্রে অভিযুক্ত ব্যক্তির আপিল করার সুযোগও থাকবে।

সিঙ্গাপুরের পার্কস এন্ড ট্রিস এ্যক্টের অধীনে পাবলিক পার্কের গাছের পাতা কাটা, ছেঁড়া, সংগ্রহ করা বা উপড়ানোর অপরাধে সর্বোচ্চ ৫ হাজার সিঙ্গাপুর ডলার (৩ লাখ ১০ হাজার টাকা) পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে।

চ্যানেল নিউজ এশিয়া জানিয়েছে, সিজিগিয়াম মিট্রিফোলিয়াম ট্রি এখন সিঙ্গাপুরের বিলুপ্তপ্রায় গাছের মধ্যে একটি। ন্যাশনাল পার্কের ফ্লোরা ও ফওনা ওয়েবেই কিছু রয়েছে।

তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ২৪ডটকম।

SHARE