1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

গ্যাসোলিন ইঞ্জিন কার উৎপাদনে বিনিয়োগ করবে জাপান

বাংলাদেশে গ্যাসোলিন ইঞ্জিন কার ম্যানুফ্যাকচারিং শিল্পে যৌথ বিনিয়োগে আগ্রহ প্রকাশ করেছে জাপান। শিল্প মন্ত্রণালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত হিরোয়াসিও ইজুমি শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনের সঙ্গে বৈঠককালে এ আগ্রহ প্রকাশ করেন।

শিল্পসচিব মো. আবদুল হালিম, অতিরিক্ত সচিব বেগম পরাগসহ শিল্প মন্ত্রণালয় ও জাপান দূতাবাসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে জাপানের রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশ ও জাপানের মধ্যে অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদারে অনেক সুযোগ বিদ্যমান।

এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে দুই দেশই লাভবান হতে পারে। বাংলাদেশের শ্রমশক্তির প্রাচুর্য শিল্পায়নে একটি বিরাট সম্ভাবনা। বাংলাদেশে তুলনামূলক কম মজুরিতে জনশক্তি পাওয়া যায়। এর সুফল কাজে লাগানো যেতে পারে।

জাপানের রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকারের গৃহীত উন্নয়ন কর্মকা-ের প্রশংসা করে বলেন, এর ফলে বাংলাদেশ বিদেশি বিনিয়োগের আকর্ষণীয় স্থানে পরিণত হয়েছে। বাংলাদেশের শিল্প খাতের গুণগত মানোন্নয়নে জাপানের সহায়তা অব্যাহত থাকবে।

শিল্পমন্ত্রী বাংলাদেশের অটোমোবাইল শিল্প খাতে জাপানের বিনিয়োগের আগ্রহকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশের ক্রেতাদের মধ্যে টয়োটাসহ জাপানি ব্র্যান্ডের গাড়ির প্রতি এক ধরনের আস্থা রয়েছে।

জাপানের হোন্ডা কোম্পানি ইতোমধ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বিএসইসির সাথে যৌথ বিনিয়োগে হোন্ডা মোটরসাইকেল উৎপাদনের কারখানা গড়ে তুলেছে। গ্যাসোলিন ইঞ্জিন কারসহ জাপানি ব্র্যান্ডের মোটর গাড়ি, কৃষি প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প, চামড়া ও কাগজ শিল্পে বিনিয়োগে এগিয়ে আসতে জাপানের প্রতি আহ্বান জানান শিল্পমন্ত্রী। তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ সব সময় জাপানি বিনিয়োগকে অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে।

ইতোমধ্যে বঙ্গবন্ধু বহুমুখী সেতু নির্মাণ, পদ্মা সেতুর প্রাক-সমীক্ষা, মাতারবাড়ি কয়লা বিদ্যুৎ উৎপাদনসহ বিভিন্ন প্রকল্পে জাপান অর্থায়ন করেছে। বাংলাদেশে মোবাইল এক্সেসরিজ শিল্পেও জাপান বিনিয়োগে এগিয়ে আসতে পারে।

More News Of This Category