1. editor@islaminews.com : editorpost :
  2. jashimsarkar@gmail.com : jassemadmin :
সফলতার গল্প :

জনপ্রিয় অনলাইন জনশক্তির সম্পাদক পদে যোগ দিলেন মোবারক হোসেন

জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল www.janashakti.news জনশক্তি নিউজের সম্পাদক হলেন সাংবাদিক মোবারক হোসেন। বৃহস্পতিবার (৭ মে) আনুষ্ঠানিক ভাবে তাকে এই দায়িত্ব দেন জনশক্তি নিউজ এর ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ ও প্রকাশক জসিম উদ্দিন সরকার। সম্পাদকের দায়িত্ব পাওয়ার পর তাকে অভিনন্দন ও উষ্ণ শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জনশক্তিনহ বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সাংবাদিকরা।

মোবারক হোসেন বলেন, আজকের দিনটি আমার জন্য অত্যন্ত আনন্দের। একই সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণও। জনশক্তি নিউজ পোর্টালের প্রকাশক জসিম উদ্দিন সরকারকে অসংখ্য ধন্যবাদ। তিনি আমাকে এই গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব অর্পণ করার জন্য। দায়িত্ব মানুষকে দায়িত্ববান করে তোলে বলে আমি বিশ্বাস করি। সেই বিশ্বাসের জায়গা থেকে নিউজ পোর্টালটি নিয়ে আমার নিজস্ব কিছু ভাবনা রয়েছে।

দেশ ও জাতীর কল্যাণে সব সময় সচেষ্ট থাকব। জনশক্তি নিউজ এর সকল সাংবাদিক ও অন্যান্য প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ায় কর্মরত গণমাধ্যমকর্মী এবং দেশবাসীর কাছে দোয়া এবং সহযোগিতা প্রার্থণা করছি। আমি যেন সততার সাথে যথাযথভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারি।

তিনি অরো বলেন, প্রযুক্তির চ্যালেঞ্জ নিয়েই এখন সাংবাদিকতা করতে হচ্ছে। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এই চ্যালেঞ্জ আরও বাড়ছে। আমরা চাইব, প্রযুক্তির কল্যাণে পাঠকের কাছে সবার আগে সঠিক ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পৌঁছে দিতে।

মোবারক হোসেনের পৈতৃক বাড়ি মানিকগঞ্জের সিঙ্গাইর উপজেলার ধল্লা ইউনিয়নের পূর্ব বাস্তা গ্রামে। তার বাবার নাম মো: দুলাল মিয়া ও মা প্রয়াত জামিলা খাতুন। ১৯৯৮ সালে জাতীয় দৈনিক ইত্তেফাকের স্টাফ রিপোর্টার অ্যাডভোকেট বখতিয়ার উদ্দিন খান তুহিন সম্পাদিত সাপ্তাহিক জাগ্রতকণ্ঠ পত্রিকায় লেখালেখির মাধ্যমে মোবারক হোসেনের সাংবাদিকতায় হাতে খড়ি।

পরবর্তীতে দৈনিক মানিকগঞ্জের কাগজ, সাপ্তাহিক গণচেতনা, দৈনিক মানুষের কণ্ঠ ও মানিকগঞ্জের খবরসহ স্থানীয়ি এবং জাতীয় বিভিন্ন প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়ায় কাজ করেন। ২০০৭ সালে সৃজনশীল লেখক মানিকগঞ্জের কৃতি সন্তান অধ্যাপক সাইফুদ্দিন আহমেদ নান্নুর সহযোগীতায় জাতীয় দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকার মাধ্যমে জাতীয় গণমাধ্যমে পা রাখেন তিনি। বর্তমান মোবারক হোসেন জাতীয় দৈনিক কালের কণ্ঠ, যায়য়ায়দিন ও ইংরেজী দৈনিক বাংলাদেশ টুডে পত্রিকায় স্থানীয় প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছেন।

সাপ্তাহিক চিত্রমেলার সম্পাদক সুজন মাহমুদ মিলন বলেন, সাংবাদিক মোবারক হোসেনের নেশা অন্যায়ের প্রতিবাদ, অনিয়ম দূর্ণীতি ও সমাজের নানা অসংগতি তুলে ধরা। তিনি কখনো অন্যায়ের সাথে আপোষ করেন না। দৃঢ়চেতা এই সাহসী সাংবাদিক প্রশাসনের অসাধু কর্তাব্যক্তি ও প্রভাবশালীদের রোষানলে পরে একাধিকবার হামলা ও মিথ্যা মামলার শিকার হয়েছেন। তার জীবনে সব চেয়ে ন্যাক্কারজনক অধ্যায় হলো-যে অপরাধের বিরুদ্ধে তিনি সারাজীবন যুদ্ধ করে আসছেন, সে অপরাধেই তাকে কারাভোগ করতে হয়েছে।

এরপরও তিনি দমে যাননি। হননি কখনো আদর্শচ্যুত। বৈরি পরিবেশে প্রভাবশালীদের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে সব সময় সত্য কথা লেখার চেষ্টা করেন। জীবননাশ ও চাঁপের মুখে লিখতে না পারলেও মনেপ্রাণে ঘৃণা করেন অন্যায়কে। কখনো মাথানত করেনি অ্যান্যায়ের কাছে। একজন সৎ ও নিষ্ঠাবান সাংবাদিক হিসেবে এলাকায় রয়েছে তাঁর যথেষ্ট সুনাম। ব্যক্তি হিসেবেও তিনি সৎ, নির্লোভ ও ভাল মনের মানুষ।

More News Of This Category