1. editor@islaminews.com : editorpost :
  2. jashimsarkar@gmail.com : jassemadmin :

ডাকঘর সঞ্চয়ে ২০ লাখ টাকার বেশী রাখা যাবে না

এবার ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের বিনিয়োগের ঊর্ধ্বসীমা কমিয়ে বর্তমানের এক তৃতীয়াংশে নামিয়ে আনলো সরকার। ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংকের এখন ২০ লাখ টাকার বেশি বিনিয়োগ করা যাবে না। যেখানে সাধারণত মধ্যবিত্ত, অবসরপ্রাপ্ত চাকরিজীবী ও নারীরাই এ স্কিমে বেশি আগ্রহী। অর্থ মন্ত্রণালয়ের অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগ (আইআরডি) এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক সাধারণ হিসাব কর্মসূচিতে একক নামে বিনিয়োগ করা যাবে সর্বোচ্চ ১০ লাখ টাকা, যা আগে ছিল ৩০ লাখ টাকা পর্যন্ত। আর যুগ্ম-নামে বিনিয়োগের ঊর্ধ্বসীমা আগে ছিল ৬০ লাখ টাকা। সেটি কমিয়ে ২০ লাখ টাকা করা হয়েছে।

ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক মেয়াদি হিসাবেও একই সীমা নির্ধারণ করে দেয়া হয়েছে। স্কিমের আওতায় ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক (সাধারণ হিসাব), ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক (মেয়াদি হিসাব) এবং ডাকঘর সঞ্চয় ব্যাংক (বোনাস হিসাব)— এ তিন ধরনের হিসাব ছিল। তবে ১৯৯২ সাল থেকে বোনাস হিসাবটি বন্ধ রয়েছে।

সাধারণ হিসাবের ক্ষেত্রে মুনাফার হার সাড়ে ৭ শতাংশ। এছাড়া তিন বছর মেয়াদি হিসাবের মুনাফার হার ১১ দশমিক ২৮ শতাংশ। তবে মেয়াদ পূর্তির আগে ভাঙানোর ক্ষেত্রে এক বছরের জন্য মুনাফা ১০ দশমিক ২০ শতাংশ। দুই বছরের জন্য ১০ দশমিক ৭০ শতাংশ।

এর আগে গত ১৩ ফেব্রুয়ারি ডাকঘর সঞ্চয় স্কিমের মুনাফার হার প্রায় অর্ধেক কমিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছিল আইআরডি। অবশ্য পরে নানা মহলের আপত্তির মুখে সরকার আগেরটিই বহাল রাখে। ১৭ মার্চ নতুন প্রজ্ঞাপন দিয়ে তা কাযর্কর করা হয়। দুই মাসের মাথায় আরেক প্রজ্ঞাপন দিয়ে বিনিয়োগের সীমা কমিয়ে এক তৃতীয়াংশে নামানো হলো।

More News Of This Category