ঢাকায় অফিস নাই এমন উদ্যোক্তাদের জন্য অফিস!

আবদুল্লাহ মো. জুবায়ের আমেরিকাভিত্তিক একটি অনলাইন বিপণন প্রতিষ্ঠানের এদেশীয় উদ্যোক্তা। তাঁর সহকর্মী তিনজন। ঢাকায় কাজ করছেন দুই বছর ধরে। তাঁদের নিজস্ব কোনো অফিস নেই। কিন্তু দিব্যি সকাল-সন্ধ্যা অফিস চালিয়ে যাচ্ছেন। তবে বাসায় বসে নয়, একটি অফিসের সব সুবিধা নিয়েই কাজ করছেন ধানমন্ডিতে।

দেশে উদ্যোক্তা বাড়ছে। তাঁদের স্থায়ীভাবে অফিস ভাড়া নেওয়া সব সময় সম্ভব হয় না। জুবায়ের বলেন, ‘লাইন্সেসের ব্যাপার থাকে। অনেক টাকা লাগে। সবকিছু একসঙ্গে করা যায় না।’ জুবায়েরের মতো উদ্যোক্তাদের অফিস সুবিধা দেওয়ার কথা মাথায় রেখে রাজধানীতে বেশ কিছু প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে। এগুলোকে বলা হচ্ছে ‘কো-ওয়ার্কিং প্লেস’।

হাবঢাকা: প্রাথমিকভাবে ২০১২ সালে শুরু হলেও আনুষ্ঠানিক যাত্রা হয় ২০১৩ সালে। উদ্যোক্তারা এখানে অফিস করতে চাইলে প্রথমে তাঁদের সদস্য হতে হবে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকে। শুধু শুক্রবার সভা-সেমিনারের জন্য ভাড়া নেওয়া যাবে। ধারণক্ষমতা সর্বোচ্চ ১৩০ জন। হাবঢাকার অফিস মিরপুর ১১ নম্বরে। সদস্য হওয়া ও ভাড়ার বিষয়ে জানা যাবে তাদের ওয়েবসাইটে (www.hubdhaka.com)।

মোড়: বনানী ১১ নম্বরে ২০১৫ সালের জুলাইয়ে শুরু হয় মোড়। হইচইমুক্ত নিরিবিলি পরিবেশে অফিস করা যাবে। সদস্য হওয়া ছাড়াও এখানে কাজ করা যায়। প্রতিদিন সকাল নয়টা থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত খোলা। সর্বোচ্চ ৭০ জনের ধারণক্ষমতা। মোড়ের বিভিন্ন আকারের সভা-সেমিনার কক্ষ রয়েছে। তাদের নামগুলোও মজার—কাঞ্চনজঙ্ঘা, পথের পাঁচালি ও চৌরঙ্গি। ভাড়া ও অন্যান্য বিষয়ে বিস্তারিত পাওয়া যাবে মোড়ের সাইটে (www.moarbd.com)।

ইনহাউজ: নান্দনিক অন্দরসজ্জার দেখা মিলবে ধানমন্ডি ২ নম্বরের ইনহাউজে। নিজের মতো করে অফিস করা ছাড়াও ইনহাউজের আছে বিশাল বারান্দা। চাইলে সেখানে বসেও অফিস, সভা-সেমিনার করা যাবে। এ বছরের এপ্রিলে যাত্রা শুরু করে ইনহাউজ। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকে। বিস্তারিত www.inhousebd.com এ জানা যাবে।

হাইভ: গ্রিন রোডে এ বছরের আগস্টে কার্যক্রম শুরু করে হাইভ। খোলা জায়গা, আলাদা কক্ষসহ অফিস, সভা-সেমিনার—সবই করা যাবে। এখানে ঘণ্টাভিত্তিক ভাড়া হয় না। দিন, সপ্তাহ ও মাস হিসেবে ভাড়া পাওয়া যায়। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত খোলা। বিস্তারিত www.hivebd.info এ।

দ্য ওয়েভ: ‘কো-ওয়ার্কিং প্লেস’ হিসেবে বনানীতে আছে দ্য ওয়েভ। এক দিন, তিন দিন, পাঁচ দিন ও মাস ভিত্তিতে এখানে ভাড়া নেওয়া যাবে। শুক্র ও শনিবারে করা যাবে ইভেন্টস। বিস্তারিত www.thewavebd.com এ জানুন।

নতুন উদ্যোক্তাদের অফিস করার এ জায়গাগুলো একটি পরিপূর্ণ অফিস পরিবেশ দেবে। ইন্টারনেট, অফিস সহকারী, চা-কফি, ক্যানটিন থেকে শুরু করে অনেক সুবিধাই আছে।

তথ্যসূত্র: প্রথম আলো ডটকম।

SHARE