1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

ঢেউটিনে দাম বেড়েছে টন প্রতি ৮-১০ হাজার টাকা!

সাম্প্রতিক সময়ে দেশের বাজারে কয়েক দফায় বেড়েছে ঢেউটিনের দাম। মাত্র এক-দেড় মাসের ব্যবধানে গুণগত মানভেদে পণ্যটির দাম বেড়েছে টনে ৮-১০ হাজার টাকা। বিক্রেতারা বলছেন, বর্ষা মৌসুমে চাহিদা কম থাকলেও কারখানা মালিকদের কারসাজিতে ঢেউটিনের দাম বেড়েছে।

তবে কারখানা মালিকদের দাবি, আন্তর্জাতিক বাজারে ঢেউটিন উৎপাদনের কাঁচামালের দাম ঊর্ধ্বমুখী থাকায় তাদেরও বেশি দামে পণ্যটি বিক্রি করতে হচ্ছে।খোঁজ নিয়ে জানা যায়, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড ও পটিয়া উপজেলায় অবস্থিত বিভিন্ন মিল গেটে বর্তমানে ভালো মানের (প্রাইম কোয়ালিটি) প্রতি টন (২৭৫ পিস) মোটা ঢেউটিন বিক্রি হচ্ছে ৮০-৮২ হাজার টাকায়।

এক-দেড় মাস আগে একই মানের ঢেউটিন বিক্রি হতো ৭২-৭৩ হাজার টাকায়। এ হিসাবে পণ্যটির দাম বেড়েছে প্রতি টনে ৮-৯ হাজার টাকা।মিল গেটে প্রাইম কোয়ালিটির প্রতি টন (২৮২ পিস) পাতলা ঢেউটিন বিক্রি হচ্ছে ৩২-৩৪ হাজার টাকায়।

জুলাইয়ের মাঝামাঝি সময়ে এ মানের টিনের দাম ছিল ২৫ হাজার টাকার মধ্যে। এ হিসাবে দেড় মাসের ব্যবধানে দাম বেড়েছে টনপ্রতি ৭-৯ হাজার টাকা। মাস দেড়েক আগে প্রাইম কোয়ালিটির প্রতি টন (২৮২ পিস) মাঝারি পুরুত্বের ঢেউটিনের দাম ছিল ৩০-৩২ হাজার টাকা। বর্তমানে এ দর ৮-১০ হাজার টাকা বেড়ে ৪০ হাজার টাকায় গিয়ে ঠেকেছে।

ঈদুল আজহার আগে মিল গেটে বি ক্লাস ঢেউটিনের দর ছিল টনপ্রতি ৬৩-৬৫ হাজার টাকা। দেড় মাসের ব্যবধানে প্রতি টনে দাম ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত বেড়ে ৭৩ হাজার টাকায় দাঁড়িয়েছে।

১০-১২ হাজার টাকা দাম বেড়েছে অপেক্ষাকৃত কম ভালো মানের বিআরও ক্লাস ঢেউটিনের। আগে মিল গেটে পণ্যটির দর ছিল ৭০-৭২ হাজার টাকা। এখন তা ৮০ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। বর্তমানে পাইকারি পর্যায়ে প্রতিটন সি ক্লাস (বান্ডেল বিআরও) ঢেউটিন বিক্রি হচ্ছে ৫৮-৬০ হাজার টাকায়। জুলাইয়ের শেষ দিকেও পণ্যটির দর ছিল ৪৫-৪৮ হাজার টাকা।

বিভিন্ন কোম্পানির ঢেউটিনের এজেন্ট চট্টগ্রামের আসাদগঞ্জ এলাকার মেসার্স ঈসমাইল ট্রেডার্সের স্বত্বাধিকারী আব্দুর রাজ্জাক বলেন, চার-পাঁচ মাস নিম্নমুখী থাকার পর জুলাইয়ের শেষ দিকে এসে ঢেউটিনের বাজার হঠাৎ বাড়তে শুরু করে। গত দেড় মাসে কয়েক দফায় পণ্যটির দাম বেড়েছে টনে ৮-১০ হাজার টাকা।

উৎপাদনকারী কারখানাগুলোয় টিনের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। মোকাম ও বাজারেও সরবরাহ পর্যাপ্ত। কিন্তু আন্তর্জাতিক বাজারে ঢেউটিন উৎপাদনের কাঁচামালের মূল্যবৃদ্ধির অজুহাতে দুই মাস ধরে কারখানা মালিকরা পণ্যটির দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন।

ঢেউটিন ব্যবসায়ীরা জানান, গত দেড় মাসে টিকে গ্রুপের ঈগল ব্র্যান্ড, এস আলম গ্রুপের মোরগ মার্কা, আবুল খায়ের গ্রুপের গরু মার্কা, পিএইচপি অ্যারাবিয়ান হর্স, এনজিএসের লাড্ডু মার্কা ও কেডিএসের কেওয়াই ব্র্যান্ডের ঢেউটিনের দাম কয়েক দফায় ৮-১০ হাজার টাকা বেড়েছে।

মিল গেটে মূল্যবৃদ্ধির প্রভাবে পাইকারিতেও প্রতি টন টিনের দাম একই হারে বেড়েছে। টিনের পুরনো পাইকারি বাজার আসাদগঞ্জ ও অলংকার-কর্নেল হাটে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বর্তমানে পাইকারি বাজারে প্রাইম কোয়ালিটির প্রতি টন (২৭৫ পিস) মোটা ঢেউটিন বিক্রি হচ্ছে ৮৬-৮৮ হাজার টাকায়।

এছাড়া প্রাইম কোয়ালিটির প্রতি টন (২৮২ পিস) মাঝারি পুরুত্বের ঢেউটিন ৪৫-৪৬ হাজার, একই কোয়ালিটির প্রতিটন (২৮২ পিস) পাতলা ঢেউটিন ৪০ হাজার, বিআরও ক্লাসের প্রতিটন ঢেউ টিন ৮৬-৮৮ হাজার, বি ক্লাসের প্রতি টন ঢেউটিন ৭৮ হাজার ও সি ক্লাসের (বান্ডেল বিআরও) প্রতি টন ঢেউটিন ৬৫ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

ঢেউটিন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান এনজিএস গ্রুপের কর্মকর্তা দীপক তালুকদার বলেন, কয়েক মাস ধরে আন্তর্জাতিক বাজারে ঢেউটিনের কাঁচামালের দাম ঊর্ধ্বমুখী। এতে দেশের কারখানাগুলোয় টিন উৎপাদন খরচও বেড়ে গেছে।

তথ্যসূত্র: বনিকবার্তা ডটকম।

More News Of This Category