নিঃসন্তানদের চিকিৎসায় সিএমএইচ-এর ফার্টিলিটি সেন্টার

বাংলাদেশ সেনাবাহিনী দেশে সর্বপ্রথম নিঃসন্তান দম্পতির চিকিৎসা সেবায় সরকারি পর্যায়ে একটি পূর্ণাঙ্গ আইভিএফ (ইন ভিট্রোফার্টিলাইজেশন) সেন্টার চালু করেছে। দেশের সব নিঃসন্তান দম্পতিদের জন্য এ সেন্টারে চিকিৎসার সুযোগ উন্মুক্ত করা হয়েছে। আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতর (আইএসপিআর) থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, ঢাকা সেনানিবাসের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের (সিএমএইচ) এই ফার্টিলিটি সেন্টারে ২০১৭ সালের জুলাই থেকে আই ভি এফ (ইন ভিট্রো ফার্টিলাইজেশন) ও আই ইউ আই (ইন্ট্রা ইউটেরাইন ইনসেমিনেশন) চিকিৎসা শুরু হয়েছে।

আইএসপিআর জানায়, এ পর্যন্ত এ সেন্টারে ৯৩ জনের আইভিএফ রয়েছে এবং এর মধ্যে প্রেগনেন্সি হয়েছে ৩৩ জনের, অর্থাৎ সফলতার হার প্রায় ৩৫ শতাংশ (ডোনার ব্যতীত) যা পৃথিবীর অন্যান্য উন্নত দেশের সমকক্ষ। এ সেন্টারে বিদেশে প্রশিক্ষিত সুদক্ষ চিকিৎসক ও নার্সদের একটি টিম রয়েছে যারা দিন-রাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে চলেছেন।

ফার্টিলিটি সেন্টার সিএমএইচ ঢাকা একটি পূর্ণাঙ্গ আইভিএফ সেন্টার যেখানে ইনফার্টিলিটি সংক্রান্ত সব ধরনের চিকিৎসা যেমন- ল্যাপারস্কপি, হিস্টেরস্কপি, হিস্টারোস্যালপিঙ্গগ্রাফিসহ আইভিএফ আগে এবং পরে সব ধরনের ফলো আপের ব্যবস্থা রয়েছে।

এই ফার্টিলিটি সেন্টারে চিকিৎসা ব্যয় সংক্রান্ত বিষয়ে তিনটি প্যাকেজ নির্ধারণ করা হয়েছে। প্যাকেজ ৩টি হল, প্যাকেজ-১ (আইইউআই), প্যাকেজ-২ (আইভিএফ/ইটি) ও প্যাকেজ-৩ (ইকসি/ইটি)। সেনাবাহিনীর ছাড়াও যেকোন সাধারণ নাগরিক নির্ধারিত মূল্যে এ প্যাকেজের চিকিৎসা সুবিধা নিতে পারবেন।

SHARE