1. editor@islaminews.com : editorpost :
  2. jashimsarkar@gmail.com : jassemadmin :
সফলতার গল্প :

ফেসবুকের ক্রিপ্টোকারেন্সি লিবরা উন্নয়নশীল দেশের জন্য ক্ষতিকর হবে

সোস্যাল মিডিয়া জায়ান্ট ফেসবুকের সহপ্রতিষ্ঠাতা ক্রিস হিউজ নিঃসংকোচে একজন মজার মানুষ। ফেসবুক প্রতিষ্ঠায় নিজের অবদান থাকলেও প্রতিষ্ঠানটির যেকোনো ভুল সিদ্ধান্তে তাকে বরাবরই সমালোচনা করতে দেখা যায়। তিনি উন্নয়ন পর্যায়ে থাকা ফেসবুকের ক্রিপ্টোকারেন্সি ‘লিবরা’-এর বিরোধিতা করে বলেন, ডিজিটাল কারেন্সি লিবরার কারণে বৈশ্বিক আর্থিক ক্ষমতা করপোরেট জায়ান্টগুলোর হাতে স্থানান্তরিত হবে, যা বিশ্বের উন্নয়নশীল দেশগুলোকে আরো দুর্বল করবে। খবর গিজমোডো।

ব্লকচেইন প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করছে ফেসবুক। এ নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরেই আলোচনা চলছে। সম্প্রতি ফেসবুকের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়, তারা লিবরা নামে ক্রিপ্টোকারেন্সি উন্নয়নে কাজ করছে, আগামী বছর ব্লকচেইন নেটওয়ার্ক প্রযুক্তির পাশাপাশি নিজস্ব ক্রিপ্টোকারেন্সি উন্মোচন করা হবে।

বিশ্বব্যাপী বিপুলসংখ্যক ফেসবুক ব্যবহারকারীর কথা বিবেচনা করে এ মুদ্রা আনছে ফেসবুক, যা ডিজাইনের ক্ষেত্রে ভিন্নতা আনা হবে। অর্থাৎ ফেসবুকের ক্রিপ্টোকারেন্সি হুবহু বিটকয়েনের মতো হবে না। এ মুদ্রার মাধ্যমে বিভিন্ন দেশে লেনদেন এবং অনলাইনে কেনাকাটা করা যাবে অনায়াসে।

ক্রিস হিউজ কলেজ রুমমেট মার্ক জাকারবার্গকে এখনো বন্ধুই ভাবেন। কিন্তু ফেসবুকের বিরুদ্ধে একের পর এক তথ্য কেলেঙ্কারি প্রকাশের পর তিনি বলেছিলেন, মার্ক জাকারবার্গ অত্যন্ত ক্ষমতাবান এবং যে কারণে ফেসবুককে বিভক্ত করে ফেলা উচিত। ফেসবুক বিভক্ত হয়ে কার্যক্রম পরিচালনা করলে অনেক বিতর্ক এড়ানো সম্ভব হবে। এর ফলে প্রতিষ্ঠানটির কার্যক্রমে স্বচ্ছতা আসবে। এবার ফেসবুকের আনতে যাওয়া ক্রিপ্টোকারেন্সি নিয়েও বিরূপ মন্তব্য করেছেন তিনি।

২০০৭ সালে ফেসবুক থেকে সরে দাঁড়ানো ক্রিস হিউজ বলেন, ‘দ্রুত চলো এবং উদ্ভাবন করো’, ফেসবুকের শুরুর দিকে এটাই ছিল আমাদের মূলমন্ত্র, যা একটি কলেজ সোস্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটের উপযুক্ত স্লোগান ছিল। কিন্তু তা কোনোভাবেই বৈশ্বিক আর্থিক সিস্টেমের জন্য উপযুক্ত নয়।

তিনি বলেন, লিবরা একই সঙ্গে ব্রিলিয়ান্ট ও ভয়ংকর একটি ধারণা। কারণ এ ডিজিটাল কারেন্সির কারণে বৈশ্বিক আর্থিক ক্ষমতা প্রাইভেট খাতের কোম্পানির হাতে চলে যাবে। বিশ্বের কিছু মানুষ টেক্সট মেসেজের মতোই অর্থ লেনদেনের সুবিধা পাবে। কিন্তু বৈশ্বিক জনসংখ্যার একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ এ সুবিধা পাবে না। তথ্যসূত্র: বনিকবার্তা।

More News Of This Category