1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

বাংলাদেশে ব্যবসা বাড়াচ্ছে ভারতীয় কোম্পানী মাহিন্দ্রা

ভারতের গাড়ি উৎপাদনকারী বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রা লিমিটেড বাংলাদেশের বাজারে ব্যবসা সম্প্রসারণে নজর দিয়েছে। এই উদ্যোগের অংশ হিসেবে এরই মধ্যে দেশে দুটি কারখানায় মাহিন্দ্রার গাড়ি সংযোজন করা হচ্ছে। এ ছাড়া বাংলাদেশে নিজস্ব কার্যালয় স্থাপন, নতুন পণ্য বাজারজাত, ব্র্যান্ডের প্রচারণাসহ নানা উদ্যোগ নিয়েছে কোম্পানিটি।

কোম্পানিটি জানায়, বাংলাদেশে ১৯৯৪ সাল থেকে পূর্ণ পরিসরে পণ্য ও সেবা সরবরাহ শুরু করে মাহিন্দ্রা। বর্তমানে বাংলাদেশে কৃষি যন্ত্রপাতি, বাণিজ্যিক যানবাহন, ব্যক্তিগত গাড়ি, নির্মাণকাজের যন্ত্রপাতি, দুই চাকার মোটরযান, জেনারেটর, তথ্যপ্রযুক্তি, সোলারসহ আট ধরনের ব্যবসা রয়েছে তাদের। এর মধ্যে হালকা বাণিজ্যিক বাহন পিকআপ, স্কুটার ও ডিজেল জেনারেটর সেট বিক্রিতে বাংলাদেশে শীর্ষে রয়েছে কোম্পানিটি। এর বাইরে ট্রাক্টর বেচাকেনায় শীর্ষ তিনটি কোম্পানির মধ্যে রয়েছে মাহিন্দ্রা।

ই-মেইলে যোগাযোগ করা হলে মাহিন্দ্রা অ্যান্ড মাহিন্দ্রা লিমিটেডের চিফ অব ইন্টারন্যাশনাল অপারেশন্স অরভিন্দ ম্যাথিউ বাংলাদেশে ব্যবসা সম্প্রসারণের নানা উদ্যোগের কথা জানিয়ে প্রথম আলোকে বলেন, বিশ্বের ক্রমবর্ধমান অর্থনীতির দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম বাংলাদেশ। দুই দশকের বেশি সময় ধরে মাহিন্দ্রার পণ্য বাংলাদেশের গ্রাহকদের চাহিদা পূরণ করে আসছে।

বাংলাদেশের এই অগ্রগতির অংশীদার হতে এ দেশে ব্যবসা সম্প্রসারণ করছে মাহিন্দ্রা। তারই অংশ হিসেবে মানসম্মত পণ্য সরবরাহের পাশাপাশি গ্রাহকের সন্তুষ্টির জন্য সার্বক্ষণিক সেবা এবং ব্র্যান্ডের স্থানীয়করণকে প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে।

বাংলাদেশে গাড়ি ও যন্ত্রপাতির বাজারে প্রবৃদ্ধির কারণ হিসেবে ব্যবসায়ীরা জানান, দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বাড়তে থাকায় বাণিজ্যিক ও ব্যক্তিগত গাড়ি ও যন্ত্রপাতির চাহিদা বাড়ছে। দ্রুত বর্ধনশীল এই বাজারে অংশীদারি বাড়ানোই মাহিন্দ্রার ব্যবসা সম্প্রসারণের মূল কারণ। গত ২০১৭-১৮ অর্থবছরে দেশে মোট জাতীয় উৎপাদন বা জিডিপি বেড়েছে ৭ দশমিক ৮৬ শতাংশ হারে।

এর মধ্যে শিল্প খাতে প্রবৃদ্ধির হার ১১ শতাংশ। নতুন নতুন অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগ বাড়ছে। বৈদেশিক বাণিজ্য বাড়ায় পণ্য পরিবহনে যেমন বাণিজ্যিক গাড়ির চাহিদা বাড়ছে, তেমনি নতুন নতুন প্রকল্প ও কারখানার প্রয়োজনে নতুন গাড়ি, নির্মাণের যন্ত্রপাতি ও জেনারেটরের চাহিদা তৈরি হচ্ছে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের গাড়ির নিবন্ধনের তথ্য অনুযায়ী, পিকআপ, জিপ, ট্রাক্টর, ট্রাক ও মোটরসাইকেলের নিবন্ধনের সংখ্যা পাঁচ বছরের ব্যবধানে তিন গুণ বেড়েছে। ২০১৩ সালে এই পাঁচটি যানবাহন নিবন্ধন হয় এক লাখের বেশি। গত বছর তা বেড়ে দাঁড়ায় ৪ লাখ ৩০ হাজারে। দ্রুত বর্ধনশীল এসব খাতেই ব্যবসা রয়েছে কোম্পানিটির।

বাংলাদেশে মাহিন্দ্রার গাড়ি সংযোজনের দুটি কারখানায় যোগাযোগ করে জানা গেছে, ২০১৬ সালের ১২ মে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে সরকারি গাড়ি সংযোজন কারখানা প্রগতি ইন্ডাস্ট্রিজের কারখানায় মাহিন্দ্রার স্করপিও এবং ডাবল কেবিন পিকআপ মডেলের গাড়ি সংযোজন ও বাজারজাত কার্যক্রম শুরু হয়। দুর্গম এলাকায় চলাচলের উপযোগী ‘স্পোর্টস ইউটিলিটি ভেহিক্যাল—এসইউভি’ ডিজেলচালিত নতুন মডেলের এই গাড়িতে স্বয়ংক্রিয় প্রযুক্তি রয়েছে।

প্রগতির কারখানায় এই দুটি মডেলের গাড়ি সংযোজনে সফলতার পর ২০১৭ সালের ২২ সেপ্টেম্বর নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে মাহিন্দ্রার পিকআপ ভ্যান ও হিউম্যান হলার সংযোজনের কারখানা চালু করে র‍্যাংগস গ্রুপ। ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পাশে প্রায় ৪০ একর জায়গাজুড়ে এই সংযোজন কারখানায় বাণিজ্যিক গাড়ি সংযোজিত হচ্ছে। ‘বাংলাদেশে তৈরি’ দর্শনের সঙ্গে পরিচিত করতেই দেশীয় প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে মাহিন্দ্রা গাড়ি সংযোজনের এই উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানা গেছে। তথ্যসূত্র: প্রথমআলো।

More News Of This Category