1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

বাড়ির বাহিরের দেয়ালের সেরা রঙ

বাড়ি যত সুন্দরভাবেই তৈরি করা হোক না কেন, ভালো রঙ ছাড়া ম্লান দেখায়। বাড়িকে আলোকিত করে তোলার উপায় হলো রঙ। বাড়ির ভেতরে যেকোনো রঙ করা গেলেও বাইরের দেয়ালে রঙ করতে চাইলে আবহাওয়া ও রঙের ধরনের বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে। বাইরের দেয়ালে রঙ করার সবচেয়ে উপযোগী সময় হলো গ্রীষ্মকাল।

বাড়ির বাইরের এ রঙ বাছাই করা বাড়ির অন্যান্য আসবাব বা সদর দরজা বাছাইয়ের চেয়েও গুরুত্বপূর্ণ। কারণ বাড়ির বাইরের রঙ আপনার পরিবারের ঐতিহ্যের পাশাপাশি ব্যক্তিত্ব তুলে ধরে। বাড়ির বাইরের রঙ বাছাইয়ে আপনাকে সহায়তা করতে আমাদের আজকের আয়োজন…

সিল্কি আকাশি নীল: এটা প্রফুল্ল, শান্ত ও স্বাচ্ছন্দ্যময় একটি রঙ। আর সবাই নীলকে ভালোবাসে। এটা সমুদ্র ও আকাশের বিশালতাকে স্মরণ করিয়ে দেয় এবং আমাদের শান্ত হওয়ার জন্য ভারসাম্য এনে দেয়। এ রঙ আশপাশের পরিবেশকে আলোকিত করে তোলার ক্ষমতা রাখে। নীল রঙ বিশ্বাস, আনুগত্য, পরিচ্ছন্নতা এবং বোঝার অনুভূতি প্রকাশ করে।

এ কারণেই বিশ্বের প্রায় ৫৩ শতাংশ পতাকায় নীল রঙ রয়েছে। প্রবাদে আছে, ‘আভিজাত্যের রঙ নীল’। এছাড়া নীল রঙ শান্তি, শান্ত, স্থিতিশীলতা, সম্প্রীতি, একতা, বিশ্বাস, সত্য, আস্থা, রক্ষণশীলতা, নিরাপত্তা, পরিচ্ছন্নতা প্রভৃতি ভাব প্রকাশে ব্যবহূত হয়। তাই এ সিল্কি আকাশি নীল বাড়ির শান্ত ও আভিজাত্য ফুটিয়ে তোলে।

ওয়ার্ম গ্রিন: বনের মধ্যে একটি চকচকে, পড়ন্ত দিনের কথা মনে করিয়ে দেয়া এবং প্রাকৃতিক করে তোলার ক্ষেত্রে সবুজ রঙের জুড়ি মেলা ভার। কোনো কিছুর উন্নতি বা ক্রমবিকাশ প্রকাশ করতে সবুজ রঙ ব্যবহূত হয়। এছাড়া সবুজ মনের ভারসাম্য বজায় রাখে। তাই রঙটি অধিকাংশ সময় স্বাস্থ্যসেবায় মার্কেটিং কৌশল হিসেবে ব্যবহূত হয়। আপনি যদি নিজেকে অনুপ্রাণিত করার স্থান হিসেবে চান, তাহলে বাড়ির বাইরের জন্য ওয়ার্ম সবুজ উপযুক্ত পছন্দ হতে পারে। আর বাড়িকে যত প্রাকৃতিক করে তোলা যাবে, ততই স্বাচ্ছন্দ্য বেড়ে যাবে।

মাখন সাদা: উজ্জ্বল মাখন সাদা রঙ বাড়ির বাইরের দেয়ালের সেরা রঙ হিসেবে ব্যবহূত হয়। বিশুদ্ধ ও পূর্ণতার রঙ এ সাদা। সাদা রঙের অর্থ বিশুদ্ধতা, নির্দোষতা, পূর্ণতা ও সম্পূর্ণতা। সাদা রঙ মনকে স্পষ্ট ও বিশুদ্ধ করে তোলে বলে বিশ্বাস করা হয়। মাখন সাদা রঙ বাড়ির বাইরের বিশুদ্ধতা তুলে ধরে।

চকোলেট বাদামি: কালজয়ী ভাব ফুটিয়ে তুলতে অন্ধকার রঙ ভালো কাজ করে। এক্ষেত্রে পছন্দের কালো রঙের চেয়ে চকোলেট বাদামি রঙ দুর্দান্ত পছন্দ হতে পারে। এটার সফট ও স্বাগত জানানোর বৈশিষ্ট্য রয়েছে। বড় বাড়িতে এ চকোলেট বাদামি রঙ চমত্কার দেখায়। বাড়ির বাইরের উপরের অংশে চকোলেট বাদামি ও নিচের অংশে ক্রিমি সাদা রঙ পুরো বাড়িকে অনন্য করে তোলে।

ধূসর: অনেক মানুষের পছন্দের সেরা রঙ ধূসর। এ রঙের সহজ ও হালকা ভাবের পাশাপাশি সহাস্যময়ী বৈশিষ্ট্য রয়েছে। ধূসর স্বাগত জানাতে এবং উচ্ছ্বসিত বোধ করতে পারে। অতিথিদের স্বাগত জানাতে দুর্দান্ত রঙ হিসেবে ব্যবহূত হয় এ ধূসর। আর এ রঙ বাড়ির বাইরের পরিবেশের সঙ্গে ভালোভাবে খাপ খায়।

হলুদ: হলুদ রঙ সাধারণত রৌদ্রোজ্জ্বল, কর্মশক্তি, ইতিবাচক, আশাবাদী প্রভৃতি ভাব প্রকাশে ব্যবহূত হয়। হলুদ রঙ খুব সহজেই সবার নজর কাড়ে এবং যেকোনো মানুষকে আকৃষ্ট করতে পারে। ক্ল্যাসিক পরিবারের বাড়ির জন্য দুর্দান্ত একটি পছন্দ হতে পারে এ হলুদ রঙ। আপনার শোয়ার ঘরের জন্য এ হলুদ রঙ সেরা না হলেও এটা অবশ্যই বাইরের জন্য সেরা হতে পারে।

ইটের লাল: দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত রঙ হচ্ছে লাল। হলুদের মতো লাল রঙও যেকোনো মানুষকে সহজেই আকৃষ্ট করতে পারে। আর ইটের লাল রঙ মনকে স্পন্দিত করতে পারে। আর আপনি অবশ্যই চাইবেন যে আশপাশের বাড়ির থেকে আপনার বাড়িটি আলাদা হবে এবং তা সহজেই মানুষকে আকৃষ্ট করতে পারবে। এটি অবশ্যই আপনার বাড়িকে আধুনিক ফ্যাশনেবল চেহারা দেবে।

গাঢ় কালো: কালো রঙ ভালোবাসে না এমন মানুষ খুব কমই পাওয়া যাবে। এটা সব রঙের থেকে উত্কৃষ্ট। আর এ কালো রঙ শক্তি-সামর্থ্যের প্রতীক। এটা খুব মার্জিত, মর্যাদাপূর্ণ ও বিলাসিতা রঙ বলেও মনে করা হয়। গাঢ় কালো রঙ আপনার বাড়িকে পরিশীলিত করার সেরা উপায়। গাঢ় কালো দেয়ালের সঙ্গে সাদা দরজা-জানালা বাড়ির দুর্দান্ত চেহারা এনে দেয়। সূত্র: হোমডিট

More News Of This Category