1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

বিচারের মুখোমুখি হচ্ছেন রিজার্ভ চুরির কোরিয়ান হ্যাকার!

২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউ ইয়র্কে রাখা বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাব থেকে ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরি হয়। ওই চুরিতে উত্তর কোরিয়ার এক হ্যাকার জড়িত ছিলেন বলে দাবি করেছে যুক্তরাষ্ট্র। শুধু তাই নয়, ওই ব্যক্তির নামও প্রকাশ করেছে দেশটি। তার নাম পার্ক জিউন হিউক।

২০১৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রের সনি কর্পোরেশন ও ২০১৭ সালে বিশ্বজুড়ে ‘ওয়ানাক্রাই র‌্যানসমওয়্যার’ সাইবার আক্রমণের দায়ে তার বিচার করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। ০৬ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার মার্কিন কর্মকর্তারা এসব তথ্য জানিয়েছেন। খবর রয়টার্স, ওয়াশিংটন পোস্ট।

পার্কের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগে বলা হয়, তিনি ‘লাজারাস গ্রুপ’ নামের একটি হ্যাকার দলের সদস্য। এই দলটি উত্তর কোরিয়ার সরকারি প্রতিষ্ঠানের হয়ে কাজ করে। তারা যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে হামলা চালায়। পার্ক ২০১৬ ও ২০১৭ সালে যুক্তরাষ্ট্রের লকহিড মার্টিনে সাইবার আক্রমণের চেষ্টা চালিয়েছিলেন।

মার্কিন বিচার বিভাগের সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল জন ডেমারস জানিয়েছেন, বিচার বিভাগের জন্য এই তদন্ত ছিল অত্যন্ত জটিল। ২০১৪ সালে সনি পিকচার্সে সাইবার হামলার মূল পরিকল্পনাকারী ছিলেন পার্ক জিউন হিউক।

একইসঙ্গে ২০১৬ সালে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরিতেও মূল প্রোগ্রামারের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। যুক্তরাষ্ট্র বহুদিন ধরেই দাবি করে আসছে উত্তর কোরিয়ার হ্যাকাররাই সাইবার হামলার জন্য দায়ী। সনি পিকচার্সে সাইবার হামলা চালিয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ফাঁস করে দেয়া হয়।

অভিযোগ প্রমাণ হলে এই হ্যাকারের সর্বোচ্চ পাঁচ বছরের সাজা হতে পারে। এ ছাড়া তার বিরুদ্ধে আনা আরেক অভিযোগে (ওয়ার ফ্রড) সাজা হতে পারে সর্বোচ্চ ২০ বছর।

২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউ ইয়র্কে রাখা বাংলাদেশ ব্যাংকের হিসাব থেকে ১০১ মিলিয়ন (১০ কোটি ১০ লাখ) ডলার চুরি হয়।

চুরি হওয়া অর্থের মধ্যে শ্রীলঙ্কায় পাঠানো ২ কোটি ডলার আটকানো সম্ভব হয়। আর ফিলিপাইনে পাচার হয় ৮ কোটি ১০ লাখ ডলার। তার মধ্যে দেড় কোটি ডলার দেশটির সরকার উদ্ধার করে ফেরত দেয়। বাকি অর্থের সন্ধান এখনও মেলেনি।

তথ্যসূত্র: আরটিভি অনলাইন ডটকম।

More News Of This Category