1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের পরামর্শ নিয়ে ইউটিউবে চ্যানেল!

ইউটিউবে চিকিৎসাবিষয়ক অনেক ভিডিও আছে বটে। তবে তার কতগুলো নির্ভরযোগ্য বা বিশেষজ্ঞদের প্রকৃত পরামর্শের ওপর ভিত্তি করে তৈরি? বাংলাদেশের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের বিভিন্ন পরামর্শ নিয়ে ইউটিউবে তৈরি হয়েছে মেডস্কুল নামের একটি চ্যানেল। চ্যানেলটিকে ঘিরে তথ্যপ্রযুক্তিভিত্তিক বিশেষ উদ্যোগ নিচ্ছেন চিকিৎসক এম এম রহমান রাজীব। ইউটিউব ভিডিওর পাশাপাশি ওয়েবসাইট ও অ্যাপের মাধ্যমে স্বাস্থ্য, চিকিৎসা পরামর্শ ও সেবা দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছেন।

রাজীব রাজধানীর ফার্মগেটে অবস্থিত ইস্পাহানি ইসলামিয়া চক্ষু হাসপাতালের মেডিসিন বিষয়ের পরামর্শক। তিনি জানান, মানুষ এখন ভিডিও দেখছে বেশি। কিন্তু ইউটিউবে বাংলায় স্বাস্থ্যবিষয়ক প্রকৃত পরামর্শের ভিডিও কম। অনেক ভুয়া ভিডিও রয়েছে। একজন চিকিৎসক হয়ে তিনি অন্য চিকিৎসকদের সঙ্গে পরামর্শ করে বিশেষজ্ঞ পরামর্শের ভিডিও তৈরি করা শুরু করেন। খুলে ফেলেন মেডস্কুলবিডি নামের ইউটিউব চ্যানেল।

চ্যানেলটিতে বিভিন্ন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের বিভিন্ন বিষয়ের ভিডিও আপলোড করতে শুরু করেন। এটি চালু হয় ২০১৭ সালের ৩০ জুলাই। ১ আগস্ট প্রথম ভিডিও আপলোড হয়। ইতিমধ্যে চ্যানেলটিতে ৬০টির বেশি ভিডিও আপলোড করা হয়েছে। এতে ২৫ জন বিশেষজ্ঞ পরামর্শ দিয়েছেন।

রাজীব বলেন, ইউটিউব ভিডিওর মাধ্যমে এখন অনেক মানুষের কাছে তথ্য পৌঁছে দেওয়া যায়। সে লক্ষ্যেই সুচিকিৎসার কথা ভেবে অনলাইন ও ইউটিউব চ্যানেল খোলা হয়। শুরু থেকেই মেডস্কুল ভালো সাড়া পেয়েছে। বিশেষ করে চিকিৎসকেরা এর জন্য ভালো সাড়া দিয়েছেন। সময় করে ভিডিওচিত্রে বিভিন্ন বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন। শিগগিরই সরাসরি চিকিৎসাসেবা দেওয়ার কথা জানান তিনি।

রাজীব আরও জানান, তাঁর উদ্যোগের সঙ্গে যুক্ত আছেন মেখলা সরকারসহ আরও কয়েকজন চিকিৎসক। তাঁকে সহযোগিতা করছেন হৃদয় রহমান নামের আরেক উদ্যোক্তা। মেডস্কুল নিয়ে ইউটিউবভিত্তিক এ উদ্যোগকে তিনি আরও বড় করার চেষ্টা করছেন। ইতিমধ্যে চালু করেছেন ওয়েবসাইট। অ্যাপ আকারে আসবে শিগগিরই। তবে সবকিছুতেই ভিডিওকে প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে। কারণ, শিশুদের প্রতি মা-বাবার করণীয়, নবজাতক, বিভিন্ন রোগবালাই-সম্পর্কিত নির্ভরযোগ্য তথ্য তুলে আনতে কাজ করছেন তাঁরা। চ্যানেলটির ঠিকানা: www.youtube.com/medschoolbd।

রাজীব জানান, তাঁর এ উদ্যোগ সচেতনতামূলক। তবে তাঁর উদ্যোগে কেউ সাহায্যের জন্য এগিয়ে এলে তাঁর জন্য ভালো হয়। এখন পর্যন্ত নিজ উদ্যোগে চিকিৎসকদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাঁদের সুবিধাজনক স্থানে এসব ভিডিও তৈরি করছেন। প্রকৃত ভিডিও তৈরির এ উদ্যোগকে সামনে এগিয়ে নিতে চেষ্টা অব্যাহত রাখার কথা বলেন তিনি।

তথ্যসূত্র: প্রথমআলো ডটকম।

More News Of This Category