1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

বুঝে ব্যবসায় বিনিয়োগ করুন!

উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য আমরা অনেকেই বারংবার চেষ্টা করেও বিফল হয়েছি। সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পেরেছি এমন মানুষের সংখ্যা খুবই কম। সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েও লেগে থাকতে পারেননি কিংবা মাঝপথে এসে সিদ্ধান্তে পরিবর্তন এনে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন এমন সংখ্যাও কম নয়। ব্যবসায় নেমে আমাদের ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ার পেছনে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে না পারাটা সবচেয়ে বড় হুমকি স্বরুপ।

কোন ব্যবসায়ের শুরুতে বাজার পর্যালোচনা ও সঠিক মাত্রায় ঝুঁকি নিরুপন করতে না পারাটা আমাদের জন্য সবচেয়ে বড় সমস্যা। যে কোন ব্যবসায়ের শুরুতে কিছুটা সময় নষ্ট করুন। ভাল করে জানার চেষ্টা করুন আপনি কি করতে যাচ্ছেন। আর সে বিষয়ে আপনার কতটা দক্ষতা আছে। যদি সে বিষয়ে আপনার জনার সল্পতা থাকে তবে চেষ্টা করুন সম্পূর্ণ বিষয়টি ভাল ভাবে আয়ত্তে আনার জন্য। অনুমান নির্ভর করে কোন কাজ করবেন না।

অনুমান ভিত্তিক কোন কাজ করলে তার ফলাফল আপনার জন্য ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে পারে। আপনার উদ্যোগকে কবরে পাঠানোর জন্য আপনার অনুমানই যথেষ্ট। যখন আমরা কোন পরিকল্পনা করতে শুরু করি, ভাবি আমি এ বিষয়টি নিয়ে কাজে নামলে সফলতা পেতে সময় লাগবে না। এই ব্যবসায় পরিকল্পনা সবার থেকে ভিন্ন। আমার পরিকল্পনাই সর্বশ্রেষ্ঠ পরিকল্পনা। এটাতে আমি সফল হব। আর বাজারে আমার প্রতিদ্বন্দীরা ছিটকে যাবে। আমার সাথে প্রতিযোগীতায় টিকতে পারা সহজ হবে না কারও পক্ষে।

একবার ভাবুন। আপনার প্রতিযোগী আপনার থেকে কম বুদ্ধিমান নয়। আপনার থেকে তার ব্যবসায়িক অভিজ্ঞতাও বেশী। আর কৌশলের কথা যদি বলি তো আপনি কার কাছে শুধুমাত্র বাচ্চা শিশু। আমরা যখন কোন পরিকল্পনা করা শুরু করি শুধু পজেটিভ দিক, না হয় তো শুধু নেগেটিভ দিক দেখতে থাকি। কিন্তু নেগেটিভ পজেটিভ দুটো বিষয়কে ব্যালেন্স করতে পারি না। যার ফলাফল হয় হ্যা নয় তো না। ভুলটা শুরু হয় এখান থেকেই।

আপনার কাছে কতটুকু সামর্থ্য আছে, কতটা সুযোগ আছে তা বিবেচনা করেন না। কতটা ঝুঁকি আপনার জন্য রয়েছে কিংবা আপনি কতটা হুমকির মুখে পড়তে পারেন তার হিসেব করেন না। যখন যে বিষয়টা নিয়ে পরিকল্পনা করেন মনে হয় সেটাই সবচেয়ে লাভবান। মোহ বুঝেন তো। মোহে পড়লে নাকি হুস জ্ঞান থাকে না। ঠিক আপনার অপার সম্ভাবনার পরিকল্পনার মোহ আপনাকে কখন যে আপনাকে ক্ষতিগ্রস্থ করবে সেটাও জানেন না।

নিজেকে দক্ষ হিসেবে তৈরী করুন আপনি যে ব্যবসায় বিনিয়োগ করবেন তার জন্য। আপনি নিজে দক্ষ না হলে অন্যের কাজের ফাঁকিবাজি কখনও ধরতে পারবেন না। আপনাকে ঠকিয়ে অন্যকেউ আপনার লাভের গুড় নিয়ে যাবে। দক্ষতা বাড়ানোর জন্য নিজেকে তৈরী করতে হবে। পরিশ্রম করতে হবে দিনরাত। কোথা থেকে কিভাবে কোন কাজটি হয় সে সম্পর্কে আপনাকে সঠিক ভাবে জানতে হবে। আপনি জুয়া খেলার মত অনিশ্চিত কোন কিছু করতে আসেন নি। যে রাতারাতি বড় হয়ে যাওয়ার স্বপ্ন দেখবেন। আপনি সততার সাথে ব্যবসা করতে আসছেন এটা সব সময় মনে ধরে রেখে সে অনুযায়ী কাজ করুন।

বাস্তবততার নিরিখে পরিকল্পনা করে কাজ করুন। খুঁজে খুঁজে বের করুন আপনার সুযোগ ও ঝুঁকি। জানার চেষ্টা করুন কিভাবে ঝুঁকি মোকাবেলা করে আপনি আপনার গন্তব্যে পৌছাবেন। অনুমান ভিত্তিক কোন সিদ্ধান্ত নিয়ে শুরুতেই পা পিছলে পড়ে যাওয়ার ঝুঁকি নেওয়াটা বোকামী ছাড়া আর কিছুই হবে না। আপনার একটা সঠিক সিদ্ধান্ত আপনার আগামীকে উজ্বল করবে। আপনার জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দিবে। আপনার পরিবার সহ আরও কিছু মানুষের সাপোর্ট হবে। সুতরাং আরও বেশী সাবধানতা অবলম্বন করুন। প্রত্যাশার সাথে বাস্তবতার ব্যালেন্স করে জেনে বুঝে দক্ষতার সাথে বিনিয়োগ করুন যে কোন ব্যবসায়।

লেখক:
মোঃ মাসুদুর রহমান মাসুদ
উদ্যোক্তার খোঁজে ডটকম।

More News Of This Category