1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

ব্যাংক খাত বিপদের মুখোমুখি অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, সত্যি কথা জানি না, সবার ধারণা ব্যাংক ও আর্থিক খাত বিপদের মুখোমুখি। এতে কিছুটা হলেও আতঙ্কগ্রস্ত হওয়ার কথা। যা হয়ে গেছে, তা ইতিহাস। হাতে সময় আছে, কাজ করতে হবে। রাজধানীর হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে অগ্রণী ব্যাংকের বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

এ সময় তিনি বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয়, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো একসময় সবার কাছে প্রিয় ছিল। মানুষ এখন ব্যাংকে আসতে ভয় পায়। ব্যাংক খাতের চাকচিক্য ও ঝলক ফিরিয়ে দিতেই আমি কাজ করব। খেলাপি ঋণ আর বাড়বে না। এতেই সুদহার এক অঙ্কে চলে আসবে। আপনারা (ব্যাংকার) এমন কাজ করবেন না, যাতে আমাকে পদত্যাগ করতে হয়।’

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘স্বল্প সুদে আমানত নিয়ে দীর্ঘমেয়াদি শিল্পে ঋণ দেওয়া হয়েছে। এটা হতে পারে না। আর্থিক বাজারে যে পণ্য আনার প্রয়োজন ছিল, আমরা তা আনতে পারিনি। বন্ড বাজার নিয়ে অনেক কথা হয়েছে। প্রাণ গ্রুপকে দিয়ে এটা শুরু হবে। প্রাণ গ্রুপ বাজারে বন্ড ছেড়ে টাকা তুলবে। এটা করা গেলে অর্থসংকট কেটে যাবে।’

মুস্তফা কামাল আরও বলেন, ‘আমাদের দেশের দেউলিয়া আইন অনেক পুরোনো। এটি এখনো হালনাগাদ করা হয়নি। এটি হালনাগাদ করতে হবে। চলতি সংসদে আইনটি করতে পারলে ভালো হবে। আমরা পদ্ধতিগতভাবে অনেকে ক্ষেত্রে পিছিয়ে আছি। আমাদের দেশে করের হার অনেক বেশি, এটা কমানো হবে। মূল্য সংযোজন করেরও (ভ্যাট) অনেক স্তর তৈরি করা হবে।

এ দেশের মানুষ যারা কর দেয়, তারাই শুধুই দেয়। যারা দেয় না, তারা দেয় না। আগামী বাজেটকে এ অপবাদ থেকে মুক্ত করব। যারা কর দেয় না, তাদের অল্প অল্প করে দেওয়া শুরু করতে হবে।’ সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির বলেন, খেলাপি ঋণ সন্তোষজনক পর্যায়ে নামিয়ে আনতে হবে। পাশাপাশি আদায়ও বাড়াতে হবে। এ জন্য করপোরেট সুশাসনের উন্নতি করতে হবে।

সম্মেলনে অগ্রণী ব্যাংকের চেয়ারম্যান জায়েদ বখ্ত বলেন, স্বল্প সুদে আমানত সংগ্রহ। স্বল্প সুদে ঋণ দিয়ে বিনিয়োগ বাড়ানো। বিনিয়োগের প্রয়োজনে বৈদেশিক মুদ্রার সংকুলান। ব্যাংক খাত মূলত এ তিনটি প্রধান চ্যালেঞ্জের মধ্যে পড়েছে। তবে অগ্রণী ব্যাংক এর মধ্যে ভালো করেছে।

তিনি আরও বলেন, খেলাপি ঋণ ব্যাংক খাতের জন্য সমস্যা। মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য উচ্চ আদালতে আলাদা ডেস্ক হলে খেলাপি ঋণ কমে আসবে। অগ্রণী ব্যাংকের পরিচালক কাশেম হুমায়ুন বলেন, যারা ব্যাংক থেকে টাকা নিয়ে বিদেশে পাচার করেছে, তাদের বিরুদ্ধে জোর ব্যবস্থা নেওয়া প্রয়োজন।

সম্মেলনে সভাপতির বক্তব্যে অগ্রণী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ শামস্-উল ইসলাম বলেন, ২০১৭ সালের তুলনায় গত বছর আমানত ১৮ শতাংশ ও ঋণ বেড়েছে ২৪ শতাংশ। পরিচালন মুনাফা বেড়ে হয়েছে ৯৫৮ কোটি টাকা। এবারের সম্মেলনে ব্যাংকটি তাদের ১৫ জন ভালো গ্রাহককে সম্মাননা দিয়েছে। সম্মাননা পাওয়া বড় গ্রাহকের মধ্যে রয়েছে প্রাণ, বসুন্ধরা, অ্যাপেক্স, সিটি, নিটল-নিলয়, নর্থইস্ট পাওয়ার, নোমান, বিএসআরএম, পিএইচপি ও প্রাইম গ্রুপ।

এ ছাড়া বাংলাদেশ সার্ভিসেস লিমিটেডের আইয়ুব হোসেন, ইস্টার্ন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের কাজী আকরাম উদ্দিন আহমেদ, এসএমই উদ্যোক্তা নুরুন্নাহার বেগম, অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামাল ও মোহাম্মদ শাহজাহান অগ্রণী ব্যাংকের গ্রাহক হিসেবে সম্মাননা নেন। সম্মেলনে শুদ্ধাচারে অবদান রাখায় ছয় কর্মকর্তা-কর্মচারীকে আর্থিক প্রণোদনা প্রদান করা হয়।

সম্মেলনে আরও বক্তব্য দেন আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব মো. আসাদুল ইসলাম। তিনি ব্যাংকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের প্রশিক্ষণ বাড়ানোর তাগিদ দেন। তথ্যসূত্র: প্রথমআলো।

More News Of This Category