ভাড়া দিয়ে আয় করা যায় এমন কিছু ব্যবসার আইডিয়া

passive income বা পরোক্ষ আয়ের উৎস হিসেবে রেন্টিং ব্যবসা বা ভাড়া দিয়ে আয় করা যায় এমন ব্যবসার জনপ্রিয়তার শীর্ষ অবস্থান করেছে। কারণ মানুষ এখন খরচ কমানোর জন্য অনেক পণ্য ক্রয় করে না, বরং কম খরচে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য ভাড়া নিয়ে থাকে। আপনি প্রায় সকল ধরণের পণ্য এবং ভারী ও হালকা কাজের সরজ্ঞাম ভাড়া দিয়ে লাভবান হতে পারেন।

যে সকল পণ্যগুলো সচরাচর ভাড়া পণ্য হিসেবে বেশি চাহিদাবহুল সে পণ্যগুলোর তালিকা করে আপনি নিজ গৃহেই প্রাথমিক ভাবে শুরু করতে পারেন। যেমন- অফিস আসবাবপত্র এবং সরজ্ঞাম, বাদ্যযন্ত্র, ভিডিও ক্যামেরা, নির্মান সরজ্ঞাম, বিবাহের জন্য জামা কাপড় ইত্যাদি জিনিসগুলো সংগ্রহ করে আপনি ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন।

এছাড়াও বাড়ি ভাড়া এবং দোকানপাট, অফিস, বিভিন্ন ধরনের বাণিজ্যিক স্থান ইত্যাদি গ্রাহকের নিকট ভাড়ায় হস্তান্তরের করেও আপনি ব্যবসাটি পরিচালনা করতে পারেন। আপনি এ ধরনের ব্যবস্থাপনা সেবা প্রদান করে শতকরা হারে ফি নিয়ে লাভবান হতে পারেন।

ভাড়া দিয়ে আয় করা যায় এমন ব্যবসার সবচেয়ে বড় সুবিধা হল যে কোনো কাজের পাশাপাশি আপনি এ ব্যবসা পরিচালনা করতে পারবেন। ১০টি রেন্টিং ব্যবসার সম্পর্কে আলোচনা করা হল যেগুলো উদ্যোক্তারদের প্যাসিভ ইনকামের জন্য কার্যকারী পথ হিসেবে কাজ করবে।

গাড়ী ভাড়া দিয়ে আয় করুন: রেন্টিং ব্যবসা সেক্টর এ কার রেন্টিং বা গাড়ী ভাড়া একটি লাভজনক ব্যবসা ধারনা। উদ্যোক্তাদের নিকট গত কয়েক বছর যাবৎ এটি একটি বিশাল ব্যবসাক্ষেত্র হিসেবে পরিগণিত হয়ে থাকে। বর্তমানে পাঠাও, উবারে আপনার গাড়ী ভাড়া দিতে পারেন।

সরঞ্জাম ভাড়া ব্যবসা: ইকুইপমেন্ট বা সরঞ্জাম ভাড়া রেন্টাল শিল্পে আরেকটি বৃহৎ ব্যবসা ধারনা। আপনি ভারী এবং ছোট সরঞ্জাম ভাড়া দিয়ে এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন। ভারী সরঞ্জাম হিসেবে বুলডোজার, বেকু, ব্যাকহোসের মতো সরঞ্জামগুলো বিভিন্ন কোম্পানির নিকট ভাড়া দিতে পারেন।

এছাড়াও ছোট সরঞ্জাম হিসেবে ট্রাক, পিকআপ, ইত্যাদি সরঞ্জাম ভাড়া হিসেবে প্রাহকদের নিকট হতে মুনাফা লাভ করতে পারেন। এক্ষেত্রে বড় মূলধন বিনিয়োগ করে আপনি লাভজনক এ ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন।

গৃহস্থালীর জিনিসপত্র ভাড়া: রেন্টিং ব্যবসায়ে সবচেয়ে সহজসাধ্য ও চাহিদাবহুল ব্যবসা হিসেবে গৃহস্থালীর জিনিসপত্র বর্তমানে উদ্যোক্তাদের নিকট ব্যাপক ভাবে সামাদৃত হয়ে থাকে। সমস্ত গৃহস্থলী আইটেম একটি নির্দিষ্ট মাসিক ভাড়ায় গ্রাহকদের সরবরাহ করে এই ব্যবসাটি শুরু করা যেতে পারে।

যেমন টিভি, ওয়াসিং মেশিন, রেফ্রিজারেটর, এয়ার কন্ডিশন, মাইক্রোওয়েভ, বিছানা, বালিশ, ওভেন ইত্যাদি হতে আপনার এই ব্যবসার ভাড়া পণ্য। মানুষ সাধারণত এক শহর হতে অন্য শহরে দ্রুত প্রয়োজনের তাগিদে অল্প দিনের জন্য ছেড়ে যায়। এ জন্য অনেকে গৃহস্থালীর প্রয়োজনীয় সরঞ্জামগুলো ভাড়া করতে পছন্দ করে। যদিও এই ব্যবসাটি আমাদের দেশে এখন চালু হয়নি, তবে খুব তাড়াতাড়ি শুরু হতে পারে।

প্রোপার্টি রেন্টাল: রেন্টিং ব্যবসায় প্রতিষ্ঠা লাভের জন্য এবং স্থায়ী মুনাফা র্অজনের জন্য প্রোপার্টি রেন্টালের এর গুরুত্ব অপরিসীম। বিভিন্ন বিয়ের অনুষ্ঠান, জন্মদিন, অফিস পার্টি, সামাজিক সমাবেশ এবং বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ অনুষ্ঠান গুলোর জন্য কনভেনশন, এপার্টমেন্ট, ফাংশনাল হল ইত্যাদি ভাড়া দিয়ে ব্যবসাটি শুরু করা যেতে পারে। শুরুতে অনেক টাকা দিয়ে এই ব্যবসা শুরু করতে হবে যা আপনার স্থায়ী বিনিয়োগ হিসাবে গন্য হবে।

ফার্নিচার রেন্টিং: রেন্টিং শিল্পে এটি একটি চাহিদাবহুল ও লাভজনক ব্যবসাক্ষেত্র। ছোট বড় ব্যবসা ও অফিসের জন্য বিভিন্ন আসবাবপত্র যেমন-ডেস্ক, চেয়ার, ক্যাবিনেট ইত্যাদি ভাড়ায় প্রদান করে এই ব্যবসাটি শুরু করা যেতে পারে। নতুন ও তরুন উদ্যোক্তাদের জন্য ফার্নিচার রেন্টিং হতে পারে বাড়তি আয়ের অন্যতম উৎস। তাছাড়া বিবাহ অনুষ্ঠানে বা যেকোন অনুষ্ঠানে আসবাবপত্রের বিকল্প নেই।

মিউজিক সরজ্ঞাম ভাড়া: বর্তমান প্রাহকরা প্রায় সব অনুষ্ঠানে ও ঘরোয়া পরিবেশে গান শুনতে পছন্দ করে। এসকল গ্রাহকদের নিকট মিউজিক উপকরণ হিসেবে স্পিকার, মাইক, ডি.জে ইত্যাদি ভাড়া হিসেবে প্রদান করে এ ব্যবসাটি শুরু করা যেতে পারে। প্যাসিভ ইনকামের পথ হিসেবে এটি হতে পারে একটি চমৎকার উদ্যোগ। আরো পড়ুন – যে ৮ কারনে ব্যবসা ব্যর্থ হয়

বই ভাড়া দিয়ে আয়: জ্ঞান অর্জনের জন্য বইয়ের বিকল্প নেই, এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আপনিও শুরু করতে পারেন বই ভাড়া দেওয়ার ব্যবসাটি। বেশির ভাগ মানুষ উপন্যাস ও বিভিন্ন ম্যাগাজিন পড়তে পছন্দ করে। এছাড়াও একাডেমিক সেশনের সময় ছাত্রছাত্রীদের পাঠপুস্তকের গুরুত্ব অত্যাধিক এই দিকটি কাজে লাগিয়ে আপনিও ক্ষুদ্র পরিসরে নিজস্ব গন্ডির মধ্যে গড়ে তুলতে পারেন এই ব্যবসাটি। জনপ্রিয়, বিদেশী, পুরাতন ও আধুনিক লেখকদের বইগুলো সংগ্রহ করে খুব সহজেই আপনি প্যাসিভ ইনকাম এর ভাল মাধ্যম হিসেবে এই ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন।

খেলাধূলা ও ফিটনেস সরজ্ঞাম ভাড়া: শরীরর্চচা ও ফিটনেস ধরে রাখার মাধ্যমে মনোবল চাঙ্গা করার জন্য সমাজের সকল বয়সের মানুষের কাছে খেলাধূলা ও ফিটনেস সরজ্ঞাম খুবই প্রত্যাশিত একটি সরঞ্জাম। আপনি বিভিন্ন ক্রীড়া সামগ্রী ও ফিটনেন্স সরজ্ঞাম যেমন-স্কাটিং, ব্যায়ামের মেশিন ইত্যাদি ভাড়া দিয়ে ব্যবসাটি শুরু করতে পারেন। আপনি চাইলে আধুনিক ফিটনেস মেশিনগুলো বিবেচনায় রাখতে পারেন। আপনার শহরে ছোট পরিসরে এই জনপ্রিয় ব্যবসাটি শুরু করে লাভবান হতে পারেন।

ভিডিও ক্যামেরা ও অন্যান্য মালপত্র ভাড়া: বর্তমানে ভিডিও ক্যামেরা ও ইলেকট্রনিক্স মালপত্র রেন্টিং ব্যবসাটি একটি লাভজনক ব্যবসা হিসেবে বিবেচিত হয়ে থাকে। গুরুত্বপূর্ণ এ ব্যবসাটি আপনি কম মূলধন বিনিয়োগ করে শুরু করতে পারেন। ব্যবসা পরিকল্পনা, বাজার গবেষনা, মূলধন, অবস্থান ইত্যাদি বিষয় গুলো এই ব্যবসার সাফল্যের জন্য বিবেচ্য বিষয়। টেকসই আইটেম ও গুনমান বজায় রেখে এ ব্যবসার মাধ্যমে আপনি আর্থিক ভাবে স্বাবলম্বী হতে পারবেন।

ফরমাল ও বিবাহ পোশাক ভাড়া দিয়ে আয় করুন: রেন্টিং ব্যবসায়ের মধ্যে একটি ব্যবসা সেক্টর ফরমাল পোশাক ও বিবাহ পোশাক ভাড়া খাতটি। বিভিন্ন অনুষ্ঠানের পোশাক, উন্নত মানের জুতা, অন্যান্য আধুনিক পোশাক সমূহ গ্রাহকদেও নিকট ভাড়া দিয়ে এই ব্যবসাটি শুরু করা যায়। এটি হতে পারে প্যাসিভ ইনকামের অন্যতম লাভজনক খাত।

বোনাস বিজনেস আইডিয়া- জেনারেটর ভাড়া, বাই সাইকেল ভাড়া, মোটরসাইকেল ভাড়া, গুদাম ঘর ভাড়া, রুম ভাড়া, নৌকা ভাড়া। তথ্যসূত্র: বাংলাপ্রেইনার।

SHARE