1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

মধ্যবিত্তের সাধ্যের মধ্যে কম দামে নতুন গাড়ি!

দেশে তিন ক্যাটাগরিতে গাড়ি বিক্রি হয়ে থাকে। ব্র্যান্ড নিউ, রিকন্ডিশন এবং পুরোনো গাড়ি বেচাকেনায় রিকন্ডিশন গাড়ির বাজার বেশ রমরমা। তবে ব্র্যান্ড নিউ গাড়ির কদরও বাড়ছে। যেসব গাড়ি জাপানে বা উন্নত দেশে চালানোর পর দেশের বাজারে বিক্রি হয়, সে গাড়িগুলোকে রিকন্ডিশন গাড়ি বলে।

অটোমোবাইলস উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান গাড়ি নির্মাণের পর সরাসরি গ্রাহকের হাতে জিরো মাইলেজে যে গাড়ি হস্তান্তর করা হয়, সে গাড়িকে ব্র্যান্ড নিউ গাড়ি বলা হয়। দেশে বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান ব্র্যান্ড নিউ গাড়ি আমদানি করে। র‌্যাংকন মোটরস, টাটা মোটরস, উত্তরা মোটরস, এক্সিকিউটিভ মোটরস, হুন্দাই মোটরস, নাভানা গ্রুপ, কর্ণফুলী গ্রুপ এগুলোর মধ্যে অন্যতম।

মিতসুবিশি, মার্সিডিজ বেঞ্জ, মাহিন্দ্র, টাটা, সুজুকি, বিএমডব্লিউ, হুন্দাই, টয়োটা, রেনল্টসহ বেশকিছু নির্মাতার একেবারে আনকোরা মানে ব্র্যান্ড নিউ বিক্রি হয় দেশের বাজারে। মোটামুটি সাধ্যের মধ্যে সেডান ধারার যে নতুন গাড়িগুলো বিক্রি হয়, সেগুলোর খোঁজ থাকছে এখানে।

মিতসুবিশি অ্যাট্রেজ: জাপানের গাড়ি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান মিতসুবিশির তৈরি ৩ সিলিন্ডারবিশিষ্ট ১.২ লিটার ইঞ্জিনের গাড়ি অ্যাট্রেজ। ২০১৭ সালে উৎপাদন হওয়া গাড়িটির ২০১৮ মডেল ১৭ লাখ টাকায় দেশের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। ১৭০ মিলিমিটার গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স, ৪২০ লিটারের বুট স্পেস, প্রশস্ত লেগ এবং হেডরুম স্পেসের সমন্বয়ে অ্যাট্রেজ বেশ নজরকাড়া। রেড মেটালিক, মিডিয়াম ব্লু মিকা, ব্ল্যাক মিকা এবং টাইটানিয়াম গ্রে মেটালিক এই চারটি রঙে পাওয়া যায় গাড়িটি।

টাটা টিয়াগো: ভারতের টাটা মোটরসের তৈরি ৩ সিলিন্ডারের ১২০০ সিসি ইঞ্জিনের ২০১৮ মডেলের গাড়ি টাটা টিয়াগো। হ্যাচব্যাক ধারার এই গাড়িটির ব্র্যান্ড নিউ মূল্য ১৪ লাখ ৯৫ হাজার টাকা। নগদে কিনলে ১২ লাখ ৯৫ হাজার টাকায় কেনা যাবে। এ ছাড়া সাড়ে ছয় লাখ টাকা এককালীন পরিশোধ করে তিন বছরে বিনা সুদে মাসিক ১৭ হাজার টাকা কিস্তিতেও হওয়া যাবে টাটা টিয়াগোর মালিক। এই গাড়িটিতে প্রতি লিটার তেলে রাজধানীতে ১৩-১৫ কিলোমিটার চালানো যায়।

সুজুকি ডিজায়ার: সুজুকি মোটর করপোরেশনের তৈরি আকর্ষণীয় একটি সেডান গাড়ি সুজুকি ডিজায়ার। ১২০০ সিসি ইঞ্জিনের এই গাড়িটির পেছনে এসি ভেন্ট রয়েছে। এ ছাড়া ১৫ ইঞ্চি অ্যালয় হুইল, হ্যালোজেন হেডলাইট ও মাল্টি ফাংশন স্টিয়ারিং গাড়িটিকে পূর্ণতা দিয়েছে। গাড়িটির মূল্য ১৭ লাখ ৩০ হাজার টাকা। উত্তরা মোটরসের আমদানি করা হ্যাচবেক গাড়ি সুজুকি অল্টো এলএক্স ৮০০ সিসি ৮ লাখ ৬৫ হাজার টাকায় পাওয়া যাচ্ছে। নগদ মূল্যে কিনলে মিলবে মূল্যছাড়।

রেনল্ট কুইড: ফ্রান্সের মোটরযান নির্মাতা রেনল্টের তৈরি কুইড গাড়িটি তিনটি গ্রেডে দেশের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে। ১ হাজার সিসির মিনি এসইউভি (স্পোর্টস অ্যাকটিভিটি ভেহিক্যাল) ধাঁচের ৩ সিলিন্ডারবিশিষ্ট কুইড আরএক্সএল, আরএক্সটি এবং ক্লাইম্বারের মূল্য যথাক্রমে ১২ লাখ ৫০ হাজার টাকা, ১৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা এবং ১৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

বিজয় দিবস উপলক্ষে মাসজুড়ে গাড়িগুলোতে ৪৭ হাজার টাকা ছাড় মিলবে। প্রশস্ত বুট স্পেসসহ গাড়িটিতে রয়েছে এএমটি ডায়াল টাইপ গিয়ার বক্স। এই গিয়ার বক্সের সাহায্যে শুধু নব ঘুরিয়ে গাড়ি পরিচালনা করা যায়। ১ লিটার ইঞ্জিনের এই গাড়িটিতে রয়েছে ১৮০ মিলিমিটারের সর্বোচ্চ গ্রাউন্ড ক্লিয়ারেন্স। ডিজিটাল স্পিডোমিটার ফিচারসমৃদ্ধ গাড়িগুলো প্রতি লিটার তেলে রাজধানীতে ১৩-১৫ কিলোমিটার পর্যন্ত চলতে পারে।

আনকোরা গাড়ি সম্পর্কে কর্ণফুলী হুইলস লিমিটেডের জ্যেষ্ঠ মহাব্যবস্থাপক জি দেবনাথ বলেন, একটি গাড়ি ব্র্যান্ড নিউ অবস্থায় কেনা অনেক নিরাপদ। গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এ ক্ষেত্রে সরাসরি বিক্রয়োত্তর সেবা দেয়। গাড়ি কেনার পর পরবর্তী যত্ন এবং রক্ষণাবেক্ষণের ওপর নির্ভর করবে গাড়িটি কতটা বন্ধুসুলভ!

তাই প্রথম অবস্থা থেকে নিজের হাতে নিজের গাড়ির পরিচালনা আনন্দময় অনুভূতি প্রদান করে। ব্র্যান্ড নিউ গাড়িতে টায়ার, চাকা, গিয়ার বক্স থেকে শুরু করে অন্য পার্টসগুলো নতুন থাকায় রক্ষণাবেক্ষণ খরচও অনেকাংশে কমে যায়। রিকন্ডিশনড গাড়িগুলোর ফিচার বেশি থাকলেও ব্র্যান্ড নিউ গাড়িতে আলাদা প্রশান্তি পাওয়া যায়। ভেতরে নতুন গাড়ির সুঘ্রাণ মিলে। বললেন ব্র্যান্ড নিউ গাড়ির একজন ক্রেতা মারজানা মান্নি।

আনকোরা গাড়ির যন্ত্রাংশগুলোও নতুন হওয়ায় মোটামুটি ২০ হাজার কিলোমিটারের আগে নিশ্চিন্তে চলাচল করা যায়। তা ছাড়া গাড়ি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠানগুলোর সার্ভিস সেন্টার থাকায় যেকোনো সমস্যায় সঙ্গে সঙ্গে সমাধান এবং স্পেয়ার পার্টস পাওয়া যায়। ব্র্যান্ড নিউ গাড়িতে পাঁচ বছর পর্যন্ত ফিটনেস শুল্ক দিতে হয় না বলে বার্ষিক শুল্কের পরিমাণও কমে যায়। তা ছাড়া রেজিস্ট্রেশন খরচও রিকন্ডিশন গাড়ির চেয়ে কম। আমি ব্র্যান্ড নিউ গাড়ি কিনে আনন্দিত। তথ্যসূত্র: প্রথমআলো।

More News Of This Category