1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

মাত্র এক লাখ ৫০ হাজার টাকায় বিএমডব্লিউ!

পর্যটন সুবিধায় দেশে আনা ১১২টি গাড়ির বিশেষ নিলামে সর্বোচ্চ দরের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। সোমবার এ তালিকা প্রকাশ করে নিলামের আয়োজক চট্টগ্রাম কাস্টমস। নিলামে সর্বোচ্চ দর উঠেছে একটি বিএমডব্লিউ’র। জার্মানিতে ২০০৭ সালে তৈরি গাড়িটি চার আসনের। এ গাড়ির জন্য ফারজানা ট্রেডিং দর দিয়েছে ৫৩ লাখ টাকা। অবশ্য কাস্টমস কর্তৃপক্ষ গাড়িটির সংরক্ষিত মূল্য ধরেছিল দুই কোটি ৩৮ লাখ ১৩ হাজার ৯৬০ টাকা।

এছাড়া বিশ্বখ্যাত ল্যান্ড রোভার ব্র্যান্ডের একটি গাড়ির সংরক্ষিত মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছিল চার কোটি ৫ লাখ ১৩ হাজার ৩১৩ লাখ টাকা। গাড়িটির দর উঠেছে ১২ লাখ টাকা। আরেকটি বিএমডব্লিউ গাড়ির দর উঠেছে এক লাখ ৫০ হাজার টাকা। গাড়িটির সংরক্ষিত মূল্য ছিল ৮৮ লাখ ৬০ টাকা। গাড়িটি ২০০০ সালের তৈরি।

কাস্টমস সূত্রে জানা গেছে, গত ৩ থেকে ৪ নভেম্বর অনলাইনে ও দেশের পাঁচটি নির্ধারিত স্থানে এসব গাড়ির পঞ্চম নিলাম অনুষ্ঠিত হয়। নিলামে ১১২টি গাড়ি তোলা হলেও দুটি গাড়ি কেনার জন্য কেউ দর জমা দেননি। এবার নিলামে তোলা ১১২টি গাড়ির সংরক্ষিত মূল্য ছিল ১৮০ কোটি টাকা। নিলামে কেপিএল কনস্ট্রাকশন অ্যান্ড ডেভেলপারস লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠান ১৬টি গাড়ির সর্বোচ্চ দরদাতা নির্বাচিত হয়েছে।

এছাড়া ফারজানা ট্রেডিং ১১টি এবং শাহাদাত হোসেন ১১টি করে গাড়ির সর্বোচ্চ দরদাতা হয়েছেন। মে মাসে ১১২টি বিভিন্ন ব্যান্ডের গাড়ি নিলামে তোলা হয়েছিল। নিলামে কেপিএল কনস্ট্রাকশন অ্যান্ড ডেভেলপারস লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠান ১৬টি গাড়ির সর্বোচ্চ দরদাতা নির্বাচিত হয়েছে। এছাড়া ফারজানা ট্রেডিং ১১টি এবং শাহাদাত হোসেন ১১টি করে গাড়ির সর্বোচ্চ দরদাতা হয়েছেন।

More News Of This Category