1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

মানুষের তথ্য বেচি না: জাকারবার্গ

ফেসবুক ব্যবহারকারীর তথ্য গোপনে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কাছে বিক্রি করে বলে অভিযোগ রয়েছে। তবে সে অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ। ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে প্রকাশিত তাঁর এক মতামতে এ তথ্য তুলে ধরেছেন মার্ক জাকারবার্গ।

বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদনে বলা হয়, গতকাল বৃহস্পতিবার ফেসবুকের ব্যবসা মডেলের পক্ষে নিজের শক্ত অবস্থানের কথা তুলে ধরেন ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা। তাতে জাকারবার্গ যুক্তি দেখিয়েছেন, ফেসবুক ব্যবহারকারীর আগ্রহের ভিত্তিতে বিজ্ঞাপন দেখানোর সঙ্গে ব্যবহারকারীর তথ্য বিক্রি করার বিষয়টি আলাদা।

জাকারবার্গ বলেছেন, ‘কাউকে যদি সেবা দিতে যাই, তবে আমাদের এমন সেবা তৈরি করতে হবে যা সবার হাতের নাগালে থাকতে হবে। এটা করার সেরা উপায় হচ্ছে সেবাটি বিনা মূল্যে দেওয়া। বিজ্ঞাপনের কারণে তা দেওয়া সম্ভব হয়।’

২০১৮ সাল অবশ্য ফেসবুকের জন্য ভয়াবহ একটি বছর গেছে। কয়েকবার এ সাইট থেকে তথ্য ফাঁস হয়েছে। ফলে প্রাইভেসি নিয়ে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। অবশ্য ফেসবুকের তথ্য কেলেঙ্কারির পরও ফেসবুকের আয় ও ব্যবহারকারী সংখ্যা বেড়েই চলেছে।

জাকারবার্গের ভাষ্য, বিজ্ঞাপন প্রাসঙ্গিক ও বিরক্তিমুক্ত করতে মানুষের আগ্রহ জানা প্রয়োজন। এ ক্ষেত্রে ফেসবুক ব্যবহারকারীর লাইক ও বিজ্ঞাপন সম্পর্কে তাদের মতামত থেকে পাওয়া ‘সিগন্যাল’ বা সংকেত ব্যবহার করে।

জাকারবার্গ বলেন, ‘অনেক সময় মানুষ আমরা যা করিনা, সেটা ধরে নেয়। যেমন-আমাদের সম্পর্কে তথ্য বিক্রির অভিযোগ আসে যা ঠিক নয়। তথ্য বিক্রি করলে আমাদের ওপর থেকে আস্থা নষ্ট হবে। এ ছাড়া তা ফেসবুকের ব্যবসার ক্ষতিও করবে। প্রতিদ্বন্দ্বীরা তথ্য হাতে পেয়ে বিজ্ঞাপনে প্রতিযোগী হয়ে উঠবে। এ ছাড়া ব্যবহারকারীর হাতে বিজ্ঞাপনদাতাকে বন্ধ করার ওপর তথ্য সংক্রান্ত নিয়ন্ত্রণ তুলে দেয়।

২০১৬ সালে ভুয়া তথ্য ছড়িয়ে মার্কিন নির্বাচনে প্রভাব ফেলাসহ ফেসবুকের বিরুদ্ধে প্ল্যাটফর্ম হিসেবে বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়ানোর অভিযোগে সমালোচনা হচ্ছে।

জাকারবার্গ বলেন, ক্লিকবেইট বা আজেবাজে অনেক বিষয় স্বল্প সময়ের জন্য হয়তো এনগেজমেন্ট বাড়াতে পারে কিন্তু এগুলো ইচ্ছাকৃত দেখানো আমাদের জন্য বোকামি। কারণ, মানুষ এগুলো চায় না। এ ছাড়া এনগেজমেন্ট বাড়াতে কোনো ক্ষতিকর বা প্রতারণামূলক কনটেন্টকে আমরা সামনে তুলে ধরি না।

More News Of This Category