1. editor@islaminews.com : editorpost :
  2. jashimsarkar@gmail.com : jassemadmin :
সফলতার গল্প :

যোগ্যতা, অভিজ্ঞতা কি করে হয়?

হাত দেওয়ার আগে ভয় হাত দিলে কিসের ভয়! বাজারের বদ্ধ পাগলটা ঠিক এভাবে বলতে বলতে ঝোলা গুড়ের ঠিলায় হাত দিয়ে দিল। দোকানীর তাড়া খেয়ে দৌড়াতে দৌড়াতে গিয়ে গুড়ে মাখা হাত ঠেলে দিল খুলে রাখা মুড়ির বস্তার ভেতর! অগ্যতা আবারও তাড়া! তাতে কি যায় আসে পাগলের মোয়া খেতে ইচ্ছে করছিল। মোয়া চাইলে তো আর কেউ দেয় না। তাই মোয়ার মত কিছু একটা তৈরী করে নেয়া আর কি! সে যাই হোক গল্পটা দীর্ঘ করলে আরও দীর্ঘ হতেই থাকবে। আমি না হয় এই চৈত্রে আষাঢ়ে গল্প, না জুড়ে বসলাম।

হ্যা পাঠক আপনাকে বলছি। যদি নতুন কিছু করতে চান তবে আপনাকে সাহসী হতেই হবে। মোয়া খেতে চাইবেন ঝুঁকি নিবেন না তাতো আর হয় না। আপনার চেষ্টা না থাকলে অবশ্য কেউ আপনাকে মোয়া দিয়ে যাবে না। আপনাকে অর্জন করেই নিতে হবে। যোগ্যতার ঠিলা যত ভারী করতে পারবেন মোয়া তত মিষ্টি হবে। যতটা ঝুঁকি বহন করতে সক্ষম হবেন ঠিক ততটা ততটা মুড়ির বস্তা আপনি সামনে পবেন। মুড়ি মোয়া এগুলো আর ফোরজি যুগেও আপডেট হলো না। মোয়া সেই আগের আকৃতিতে রয়েই গেল। তার চেয়ে চলুন দেখি সিঙ্গারার মধ্যে আলুটা কিভাবে এলো!

আলু ছাড়া সিঙ্গারা একবার কল্পনা করুন তো পাঠক। কোন ভাবে হিসাব মেলাতে পারছেন না তাই তো! অর্থাৎ যোগ্যতা যতটুকু তা ওই আলুর! পাঠক বিরক্ত হতে নেই। শেখার প্রচেষ্টায় কখনও বিরক্ত হতে নেই। আপনার ভেতরকার যোগ্যতা ওই সিঙ্গারার আলুর মত। নিজেকে যত যোগ্যতায় টেষ্টি করতে পারবেন অন্যরা ঠিক ততটা উপভোগ করতে পারবে আপনাকে। আপনার মূল্যায়নও ঠিক ততটা সমাদরে হবে। আপনার যোগ্যতা আপনাকে যথাযত স্থানে বসিয়ে দিবে। আচ্ছা এত যে যোগ্যতার কথা বলছি তা কি হেটে হেটে আপনিতে রাস্তা চিনে আপনার বাসায় এসে দরজায় নক দিবে? মোটেও সেটা ভাবতে যাবেন না। তাহলে আপনি নম্বার ওয়ান অলস!

যোগ্যতার জন্য আপনাকে উৎসুক হতে হবে। উৎসুক হতে হলে আপনাকে পরিশ্রমী হতে হবে। পরিশ্রমী হতে হলে সাহস ধারণ করতে হবে। বলি এত কিছু কি এমনিতেই হয়ে যাবে। দিনের পর দিন ধৈর্য্যও ধরতে হবে। আপনাকে রাস্তা চিনায়ে দেওয়ার জন্য কেউ অবনী পারে নেই। সবাই ব্যস্ত। তার মধ্য থেকে আপনাকে সুযোগ বের করে নিয়ে রাস্তা চিনতে হবে। কারও কাছ থেকে আপনি খুব সহজেই কিছু পেয়ে যাবেন এমন ধারণা করলে আপনি ভুল করবেন। আপনি নির্দিধায় ধরে নিতে পারেন আপনি প্রত্যাখাত হবেন। একজন, দুইজন, দশজন, শতজন কেউ না কেউ আপনাকে কোন না কোন একটা ক্লু কিন্তু দিবেই। সে পথ ধরে হাটতে পারলেই যোগ্যতা ধরা দিবে।

সহজ বিষয় খুব সহজে সাধন করা যায় না। কখনও কখনও খুব সহজ বিষয়ও এতটা জটিল হয়ে দাড়ায় যার সমাধানের জন্য দিতরাত পরিশ্রম আর মেধা খাটিয়েও বিফল হতে হয়। যে লেগে থাকে সে জিতে। একটা কাজ পুনঃপুন বারবার করতে করতে ভুল গুলো কোথায় হয় সে শিখে যায়। ভুলগুলো করতে করতে একসময় সে সমাধানের পথও বের করে ফেলে। একটা সময় এমন হয় যে অন্য কেউ তার সামনে ওই একই ভুলটা করলে তার চোখ এসে সেখানেই আটকে যায়।

যোগ্যতা ঠিক এটাই। যেখানে অন্যের ভুল ধরতে পেরে সেটার সঠিক ও সহজ সমাধান দিতে সক্ষম হন। আর হ্যা যোগ্যতা অর্জনের জন্য আপনাকে ঝুকি তো নিতেই হবে। যত ঝুকি বহনের সক্ষমতা অর্জন করবেন তত যোগ্যতা বাড়বে। যত যোগ্যতার প্রয়োগ ঘটাতে পারবেন তত অভিজ্ঞতা হবে। যত অভিজ্ঞতা হবে ততটা আপনার অগ্রসরমান পথে সফলতার যাত্রাটা সহজ হবে। কাজেই বৃথা সময় নষ্ট নয়।

লেখক:
মাসুদুর রহমান মাসুদ
উদ্যোক্তার খোঁজে ডটকম।

More News Of This Category