1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

সফল জীবনের জন্য ২৭ নির্দেশনা

জীবনের সফলতাকে ব্যাপক অর্থে এভাবে বলা যায় যে, ব্যক্তি তার জীবনের সে সকল লক্ষ্য অর্জনে সক্ষম হওয়া যা সে হতে চায় এবং যার জন্য হৃদয়ের গভিরে দৃঢ় সংকল্প গ্রহণ করে। সে মনে করে তার জীবনকে সে অবশ্যই সাফল্যমণ্ডিত সুন্দর করবে এবং এর জন্যে প্রয়োজনীয় কর্মদক্ষতা ও ইতিবাচক সক্ষমতা অর্জন করতে থাকে।

যারা জানতে চায় জীবনের সফলতা কিভাবে অর্জন করতে হয়, ইনশাআল্লাহ আমাদের এ প্রবন্ধে তাদের জন্যে থাকবে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশনা।

জীবনে সফল হবার উপায়: ১. আল্লাহর উপর তাওাক্কুল করা (আল্লাহর উপর পূর্ণ ভরসা রাখা ২. আত্মবিশ্বাসী হওয়া ৩. অভ্যন্তরীণ উদ্বেগ-উৎকণ্ঠাকে চ্যালেঞ্জ করা এবং বাইরের পারিপার্শ্বিক পরিবেশ-পরিস্থিতির দ্বারা সৃষ্ট বাধা ও সমস্যাবলিকে মাড়িয়ে যাওয়া। ৪. লক্ষ্য অর্জনের পরিকল্পনা করা।

৫. বারবার চেষ্টা করতে থাকা যতক্ষণ না লক্ষ্য অর্জন হয়ে যায়। ৬. ইতিবাচক চিন্তা ও চেষ্টা অব্যাহত রাখা এবং নেতিবাচকতাকে মোটেও প্রশ্রয় না দেওয়া। ৭. যথা সম্ভব সময়ের রুটিন করে চলা। ৮. পরিবার থেকে শুরু করে সকলের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে চলা। ৯. কাজ এবং প্রশিক্ষণের ধারাবাহিকতা বজায় রাখা ১০. অপরের প্রতি মানবিকবোধ রাখা ও সম্মান প্রদর্শন করা।

১১. ব্যক্তিগত ও পেশাদার দক্ষতা ও ক্ষমতার বিকাশ করা ১২. ব্যক্তিগত আচরণ নিরীক্ষণ করা এবং এতে নিষ্ঠা ও ভারসাম্য বজায় রাখা। ১৩. নতুন নতুন বিষয় শিখতে থাকা। যেমন নতুন কোন ভাষা, কলা-কৌশল বা হস্তশিল্প। ১৪. ডায়েরীতে দৈনন্দিনের নতুন নতুন কাজ ও ইতিবাচক ঘটনাগুলো লিখে রাখুন। এর একটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য হল, অনাগত ভবিষ্যতে অতীতের এ সকল ঘটনা আপনাকে মহৎ সাহস ও সাফল্যের প্রেরণা যোগাবে।

১৫. সাফল্য অর্জন করুন ও সফলতার পথে চেষ্টার বাহন কখনোই থামাবেন না। ১৬. নেতিবাচক মানুষদের থেকে দূরে থাকুন। ১৭. সফল ব্যক্তিদের সাথে সুসম্পর্ক রাখুন এবং তাঁদের সাফল্যগাঁথায় প্রভাবিত হোন। ১৮. প্রতিটি দিন, সপ্তাহ ও মাসের ছোট ছোট সফলতাগুলোকে মূল্যায়ন করুন এবং আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞ হোন। এগুলো নিয়ে আসবে একটি পূর্ণ বছরের সফলতা এবং একটি সফল জীবনের।

১৯. জীবনের কাজগুলোর মাঝে প্রায়োরিটি রক্ষা করুন। তুলনামূলক অধিক গুরুত্বপূর্ণ কাজ ও প্রয়োজন কোনটি বিবেচনা করে সামনে অগ্রসর হোন। ২০. অতি বিষণ্ণ বা খুব উল্লসিত হবেন না। এই দুই বিষয়ে অতিরঞ্জন মানুষের শক্তি ও সময়কে নিস্ফল করে দেয়। ২১. আল্লাহর কাছে সাহায্য প্রার্থনা করুন যখন পরিস্থিতি সংকীর্ণ ও প্রতিকূল অনুভব করেন।

২২. দুঃখ ও রাগের অনুভুতি দূর করতে একটি সঙ্গত সময়ের জন্য নিজেকে সুযোগ দিন। এরপর আবার জীবনের পথে নতুনভাবে দৃঢ় প্রত্যয়ে চলতে শুরু করুন। ২৩. নিজেকে সব দিক থেকে উন্নত করুন। বই পড়া ও বাস্তবতার ওপর নির্মিত প্রামাণ্য চিত্র দেখা যেতে পারে। উপকারি সভা-সেমিনারে অংশ নিন। জ্ঞানী ও গুণীজনদের সাহচর্য নিন।

২৪. প্রভাতেই ঘুম থেকে উঠুন। সালাত আদায় করে সুস্থতার জন্য স্বীকৃত পন্থাগুলো অবলম্বন করতে পারেন। শরীরের জন্যে ক্ষতিকর সিগারেট বা কোন ক্ষতিকর পানীয় গ্রহণ থেকে বিরত থাকুন। এসব জিনিস শুধু শরীর নয় বরং চিত্তকেও দুর্বল করে দেয়। দুর্বলচিত্তের ব্যক্তি সফল কি করে হবে?

২৫. লক্ষ্য অর্জনে তাড়াহুড়া করবেন না। রাসুলুল্লাহ সা. বলেছেন, তাড়াহুড়া শয়তান থেকে হয়। ২৬. হঠাৎ মাথায় আসা সুন্দর চিন্তাগুলো একটি নোট বইয়ে লিখে রাখুন। কখনো সেই চিন্তাটিই জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারে। ২৭. অপরের প্রতি সহানুভুতিশীল হোন। তাদের সুবিধা-অসুবিধার প্রতি লক্ষ্য রাখুন। মানুষের সাথে ভালো আচরণ করুন। প্রয়োজনের সময় পাশে দাঁড়ান।

আধুনিক প্রযুক্তি থেকে উপকার নিন। প্রযুক্তির ব্যবহার শিখে নিন। প্রযুক্তি আপনার সফলতার যাত্রায় অনেক বড় সহায়ক ভূমিকা রাখতে পারে। তথ্যসূত্র: পরিবর্তন ডটকম।

More News Of This Category