সহজে ফিনল্যান্ডের ভিসা পেতে!

ফিনল্যান্ডের অর্থনীতি যেমন সমৃদ্ধ তেমনই এর জীবনযাপন ব্যবস্থাও উন্নত। পাশাপাশি এখানে শিক্ষার সুযোগ-সুবিধাও আধুনিক ও উন্নতমানের। বাংলাদেশে ফিনল্যান্ডের কোন দূতাবাস না থাকায় বাংলাদেশী নাগরিকদের ফিনল্যান্ড যেতে হলে ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লীতে অবস্থিত ফিনল্যান্ডের দূতাবাসে আবেদন করতে হয়।

পড়াশুনার জন্য ইউরোপের যে দেশগুলোতে টিউশন ফি ছাড়া উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করা যায় তাদের মধ্যে একটি ফিনল্যান্ড। তাই এ দেশে প্রতি বছর এশিয়া ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশ থেকে প্রচুর শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষা ও প্রশিক্ষণ গ্রহণের উদ্দেশ্যে পাড়ি জমায়।

ভিসা প্রাপ্তির জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র: পূরণ-কৃত আবেদন ফরম, ১টি পাসপোর্ট সাইজের ছবি, বৈধ পাসপোর্ট যার কমপক্ষে ২ টি ফাঁকা পৃষ্ঠা রয়েছে, ফেরত টিকেট, থাকার জন্য যথেষ্ট তহবিল থাকর প্রমাণপত্র, ভিসা ফি জমা দেয়ার রশিদ, স্বাস্থ্য বীমার কাগজপত্র

ভিসা আবেদনের নিয়ম: ভিসা আবেদন ফরমের দুই পাশের শূন্যস্থানগুলো সঠিকভাবে পূরণ করে জমা দিতে হবে। আবেদন ফরমের কপি জমা দেওয়ার খেয়াল রাখতে হবে যেন তারিখ ও স্বাক্ষরের ঘর ফাঁকা না থাকে।

স্টুডেন্ট ভিসা: বাংলাদেশে ফিনল্যান্ডের কোন দূতাবাস না থাকায় স্নাতক স্তরে ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কিংবা স্নাতকোত্তর স্তরে অফার লেটার পাওয়া শিক্ষার্থীদের ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লীতে অবস্থিত ফিনল্যান্ড দূতাবাসে ভিসার আবেদনপত্র জমা দিতে হয়। ভিসা আবেদনপত্রের ওয়েবসাইট: http://www.migri.fi

স্টুডেন্ট ভিসার জন্য নির্ধারিত ফর্ম ডাউনলোড করে স্পষ্ট অক্ষরে প্রয়োজনীয় তথ্যাবলী দিয়ে পূরণ করতে হবে। আবেদনপত্র জমাদানের সময় জমা দিতে হবে: শিক্ষাগত যোগ্যতার সার্টিফিকেট ও মার্ক-শিটগুলোর মূল কপি, বীমাপত্রের মূল কপি, জন্ম-নিবন্ধন সনদপত্র, ইংরেজি ভাষায় দক্ষতার সনদপত্র (টোফেল অথবা আইইএলটিএস),

ব্যাংক সার্টিফিকেট ও তিন মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্টের মূল কপি দেখাতে হবে। আবেদনপত্র এবং অন্যান্য কাগজপত্রের ২ সেট ফটোকপি ভিসার জন্য নির্ধারিত সাইজের ৪ কপি ছবিসহ জমা দিতে হবে। এর সাথে লাগবে সর্বশেষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাড়পত্র, রেফারেন্স লেটার ও পাসপোর্টের ফটোকপি।

এছাড়াও যা দরকার হতে পারে— ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীদের নিজ নামে খোলা ব্যাংক অ্যাকাউন্টে ৬,০০০ ইউরো সমপরিমাণ অর্থ জমা রাখা প্রয়োজন হতে পারে, সকল দলিল অবশ্যই একজন নোটারি পাবলিক কর্তৃক সত্যায়িত হতে হবে।

টুরিস্ট ভিসার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র: সেনজেন এলাকার এবং ফিনল্যান্ডের ভিসা। বৈধ পাসপোর্ট যার ভ্রমণ শেষ হওয়ার তারিখ হতে কমপক্ষে ৯০ দিন মেয়াদ রয়েছে এবং এর ফটোকপি। পাসপোর্টের কমপক্ষে ২ টি ফাঁকা পৃষ্ঠা অবশিষ্ট থাকতে হবে।

ভিসা আবেদন ফরম সঠিকভাবে পূরণ করে জমা দিতে হবে যার তারিখ ও স্বাক্ষরের ঘর অবশ্যই পূরণ করতে হবে। সম্প্রতি তোলা ৩৬×৪৭ মি.মি. আকারের ১ কপি রঙিন ছবি যার পটভূমি হবে হালকা রঙের এবং তা আবেদন ফরমের সাথে যুক্ত হবে না। প্রযোজ্য ক্ষেত্রে পেশাগত কাজের বর্ণনা।

SHARE