1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

হাড় হিম করা পর্যটন আকর্ষণ!

প্রতিটি ক্ষেত্রেই চীন যুক্তরাষ্ট্রকে টেক্কা দেওয়ার চেষ্টায় আছে। তবে পর্যটক আকর্ষণে চীন নতুন নতুন প্রকল্প হাতে নিয়েছে। এদের মধ্যে কিছু প্রকল্প আছে রীতিমতো হাড় হিম করা। এসব স্থানে গেলে মজাদার অনুভূতির সঙ্গে ভীতিও ঘাড়ে সওয়ার হবে।

সম্প্রতি হেনান প্রদেশের কিং ইয়ান সিটিতে একটি ইউ-শেপ অবজারভেশন টাওয়ার উন্মুক্ত করা হয়েছে। এর হাঁটার পথ পুরোটা কাঁচ দিয়ে তৈরি এবং উচ্চতা ২০২ মিটার। পাহাড়ের কিনার থেকে এটি সামনের দিকে ৭২ মিটার এগিয়ে গেছে। এর ওপর উঠে অনেক পর্যটককে ভয়ে বসে পড়তে দেখা গেছে। কাউকে কাউকে টেনে আবার কিনারে নিয়ে আসতে হয়, কারণ কিছুদূর যাবার পর তারা ভয়ে আর সামনে কিংবা পিছনে যেতে পারে না।

ফুক্সি মাউন্টেন স্কাইওয়াক: হেনানের ফুক্সি পর্বতে একটি স্কাইওয়াক করা হয়েছে যেটির ওপর দিয়ে হাঁটতে গেলে রীতিমতো ‘পাথুরে কলিজা’ থাকতে হবে। এই স্কাইওয়াকটি তৈরি করা হয়েছে ৩ হাজার টন কাচ ব্যবহার করে। একদম স্বচ্ছ এই কাচের পথের ওপর দিয়ে হাঁটার সময় বোঝাই যায় না পায়ের নিচে কিছু আছে কি না। শূন্যের ওপর দিয়ে চলা এই রাস্তাটি ভূমি থেকে ১১শ ফুটের বেশি উঁচুতে। একারণে হাঁটার সময় নিচের দিকে তাকালে দুর্বল হার্টের মানুষদের মাথা ঘুরে যেতে পারে। গত ১৬ জুন এটি সবার জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে।

তিয়ানমেন মাউন্টেনের স্কাইওয়ে: এই স্কাইওয়েটি ভূমি থেকে প্রায় ৫ হাজার ফুট উঁচুতে। ফলে এর ওপর দিয়ে চলাচল করা আরো কঠিন। অনেকে এর ওপর উঠে জ্ঞান হারিয়েছেন। কিংবা চোখ বন্ধ করে বসে পড়েছেন। এই প্রকল্পে যুক্তরা বলেছেন, বাইরে থেকে আতঙ্কজনক মনে হলেও এতে আসলে ভয়ের কিছু নেই। কারণ এগুলো এতটা মজবুত যে কখনো ভেঙে পড়ার সম্ভাবনা নেই। চীনের বেশ কয়েকটি প্রদেশে এধরনের বহু স্কাইওয়ে আছে। যেগুলো দেখার জন্য লাখ লাখ মানুষ জড়ো হয়।

মচমচ করা কাচের রাস্তা: চীনে কাচের স্কাইওয়ে অনেকগুলো আছে। কিন্তু হেবেই প্রদেশের তাইহাং কর্তৃপক্ষ আরেক কাঠি সরেস। তারা ভূমি থেকে প্রায় ৪ হাজার ফুট উঁচুতে যে স্কাইওয়েটি তৈরি করেছে সেটিও স্বচ্ছ কাচ দিয়ে তৈরি। এই কাচের রাস্তায় হাঁটার সময় একজন পর্যটকের অজ্ঞান হয়ে যাবার একটি ভিডিও সম্প্রতি ফেসবুকে সাড়া ফেলে দেয়।

কারণ ওই পর্যটক মনে করেছিলেন তার শরীরের ভারে বোধহয় পায়ের নিচের কাচ ফেটে ভেঙে যাচ্ছে। পরে কর্তৃপক্ষ তাদের ব্যাখ্যায় জানায়, মজবুত কাচের নিচে ভাঙা কাঁচ ব্যবহার করা হয়েছে কাচ ভেঙে যাবার ‘ইফেক্ট’ তৈরি করার জন্য। আসলে এগুলো এত মজবুত যে কখনোই তা ভাঙবে না। তবে এ ব্যাপারে স্কাইওয়ের প্রবেশমুখে একটা ঘোষণা থাকলে ভালো হতো।

এছাড়া হুনান প্রদেশে আছে একটি স্কাই ল্যাডার। ভূমি থেকে সাড়ে ১২ হাজার ফুট উঁচু এই ল্যাডারে উঠতে গেলে ‘অসীম’ সাহসী হতে হবে বলে উল্লেখ করেছে কর্তৃপক্ষ।-সিএনএন।

More News Of This Category