1. [email protected] : editorpost :
  2. [email protected] : jassemadmin :

২৪তম অর্থনীতির দেশ হবে বাংলাদেশ : অর্থমন্ত্রী

২০৩২ সালের মধ্যে অর্থনৈতিক শক্তিমত্তায় বাংলাদেশের অবস্থান সারা বিশ্বে ২৪তম হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের গতি যেভাবে চলছে, তার স্বীকৃতি দিচ্ছে সারা বিশ্ব। অর্থনৈতিক উন্নয়ন বিশেষ করে দেশে কর্মসংস্থান বাড়ানো, দারিদ্র্য বিমোচন, বিনিয়োগ বৃদ্ধির পাশাপাশি খেলাধুলার উন্নয়নেও কাজ করা হবে। শেরেবাংলা নগরে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগে (ইআরডি) নিজ দপ্তরে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন বিভিন্ন সংস্থা ও বিভাগের ঊর্ধ্বতনদের সঙ্গে দিনভর বেশ কয়েকটি বৈঠক করেন। এর মধ্যে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যানের সঙ্গে বৈঠক করলেও মন্ত্রী সে বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বিএসইসি চেয়ারম্যান কমিশনের সমস্যা ও প্রতিবন্ধকতার বিষয়ে অবহিত করেছেন। আমি সেগুলো শুনেছি। এ বিষয়ে কিছু বলার প্রয়োজন মনে করলে আপনাদের জানাব।

গতকাল বিভিন্ন ক্রীড়া ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতারা অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে তাকে শুভেচ্ছা জানান। ঢাকা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের প্রতিনিধিরা অর্থমন্ত্রীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানোর পর তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, দেশ উন্নত হলে কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পায়। দারিদ্র্য বিমোচন হয়। আমরা দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছি। বেসরকারি খাতের মাধ্যমে দেশের অর্থনীতি এগিয়ে যাচ্ছে। অর্থনৈতিক উন্নয়নে বেসরকারি খাত অগ্রগামী থাকবে। সহযোগী হিসেবে সব ধরনের কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে সরকার।

খেলাধুলার ইতিবাচক দিক তুলে ধরে তিনি বলেন, দেশের অর্থনীতিকে এগিয়ে নিতে হলে খেলাধুলাকেও এগিয়ে নিতে হবে। মানুষের মননশীলতা বিকাশে খেলাধুলার বিকল্প নেই। নিজেকে খেলাধুলার মানুষ পরিচয় দিয়ে তিনি বলেন, সবসময় খেলাধুলার উন্নয়নে কাজ করব।

ঢাকার ক্লাবগুলো দেশের ক্রিকেট-ফুটবল এগিয়ে নিতে কাজ করে। ঢাকার ক্লাবগুলোর উন্নয়ন দরকার। আমাদের প্রধানমন্ত্রী খেলাধুলার উন্নয়নে নিবেদিতপ্রাণ। ওনার কাছে আবাহনী ও মোহামেডানের কোনো ভেদাভেদ নেই। প্রধানমন্ত্রী খেলাধুলার উন্নয়ন চান।

দেশে ক্রিকেটের উন্নয়ন প্রসঙ্গে আইসিসি ও বিসিবির সাবেক এ সভাপতি বলেন, একসময় দেশের মানুষের কাছে ক্রিকেট জনপ্রিয় ছিল না। ওয়াসিম আকরাম ও জাদেজার মতো তারকা খেলোয়াড়কে বাংলাদেশে এনে ক্রিকেট প্রমোশন করেছি।

এ সময় মোহামেডান ক্লাবের পরিচালক রেজাউর রহমান সোহাগ বলেন, নবনির্বাচিত অর্থমন্ত্রী খেলাধুলাপ্রিয় মানুষ। অর্থমন্ত্রী দেশের ক্রীড়াঙ্গন এগিয়ে নেবেন। ঢাকার ক্লাবগুলো দেশের খেলাধুলার উন্নয়নে কাজ করে। সরকারও দেশের ক্লাবগুলোর উন্নয়নে এগিয়ে আসবে।

ঢাকার ক্লাবগুলো বাঁচলে দেশের ক্রীড়াঙ্গন বাঁচবে। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন মোহামেডান ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইনচার্জ লোকমান হোসেন ভূঁইয়া, পরিচালক আমিরুল ইসলাম বাবু প্রমুখ।

More News Of This Category