1. editor@islaminews.com : editorpost :
  2. jashimsarkar@gmail.com : jassemadmin :

৯ বছরে গুগলকে টপকাতে পারেনি কেউ

যদি প্রশ্ন করা হয়, এখন বিশ্বের সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় বা ব্যবহৃত ওয়েবসাইট কোনটি? হয়তো অনেকেই এক বাক্যে নাম বলতে গিয়েও থতমত খেতে পারেন। তবে বেশিরভাগের মাথায় যে নামটি আসবে তা হলো, গুগল।

সত্যিই গুগল এখন বিশ্বের সবথেকে জনপ্রিয় ওয়েবসাইট। কিন্তু গুগল কবে থেকে সেই তালিকার শীর্ষস্থান দখল করেছে সেটি জানেন?ডেটা ইজ বিউটিফুল নামের একটি ইউটিউব চ্যানেল বেশ কিছুদিন থেকেই জনপ্রিয় সব প্রতিষ্ঠান, ওয়েবসাইট, সামাজিক মাধ্যমসাইটগুলোর একটি হিসাব ভিডিও গ্রাফিক্সের মাধ্যমে প্রকাশ করছে।

তাদের একটি ভিডিও সম্প্রতি প্রকাশ করা হয়েছে যেখানে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ওয়েবসাইটগুলো সম্পর্কে তথ্য দেওয়া হয়েছে। সেই ভিডিওতে ১৯৯৬ সাল থেকে চলতি বছরের চলতি অক্টোবর মাস পর্যন্ত তথ্য সংযুক্ত করা হয়েছে। এই ২৩ বছরে ওয়েবসাইট ব্যবহারের ক্ষেত্রে এসেনে নানা ধরনের পরিবর্তন।

যার ফলে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান কখনো শীর্ষে থেকেছে, তো আবার সময়ের আবর্তে সেই প্রতিষ্ঠান একেবারে হারিয়ে গেছে। সেই ভিডিও থেকে দেখা যায় সর্বশেষ জনপ্রিয় ও ব্যবহারকারী বিবেচনায় শীর্ষস্থানে রয়েছে গুগল। এর পরেই আছে গুগলের আরেকটি প্রতিষ্ঠান ইউটিউব। তৃতীয় অবস্থানে জায়গা করে নিয়েছে বিশ্বের সবথেকে জনপ্রিয় সামাজিক মাধ্যম সাইট ফেইসবুক।

এছাড়াও তালিকার চতুর্থ স্থানে রয়েছে চীনের সামাজিক মাধ্যম বাইদু, পঞ্চম স্থানে উন্মুক্ত বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়া। এর পরের স্থানগুলোতে যথাক্রমে টুইটার, ইনস্টাগ্রাম, ইয়াহু, এক্সভিডিওস, ইয়ানডেক্স, পর্নহাব। কিন্তু এমন কিসেই শুরু থেকেই ছিল? ছিল না। ১৯৯৬ সালের জানুয়ারিতে সবার শীর্ষে ছিল এএলও।

দীর্ঘদিন শীর্ষস্থান ধরে রাখার পর ২০০১ সালের মার্চে সেই স্থান দখল করে ইয়াহু ডটকম। তারপরই শুরু প্রযুক্তি দুনিয়ায় ওয়েবসাইট হিসেবে ইয়াহুর শীর্ষস্থানে থাকা। এই সময়গুলোতে অনেক ওয়েবসাইট জনপ্রিয় হয়েছে। কিন্তু ইয়াহুকে ছুঁতে পারেনি কেই। পাঁচ বছর পর ইয়াহুকে শীর্ষস্থান থেকে নিচে নামায় গুগল।

২০০৬ সালের জুনে এসে গুগল উঠে যায় সবার উপরে।কিন্তু গুগল মাত্র দু’বছরের মাথায় সেই শীর্ষস্থান হারায় ইয়াহুর কাছে। তবে ইয়াহুও বেশিদিন ধরে রাখতে পারেনি তাদের অবস্থান। ২০১০ সালের জুনে আবারও শীর্ষস্থানে উঠে আসে গুগল।

সেসময় ইয়াহু বড় ধরনের হ্যাকের সম্মুখীন হলে নিজেদের জনপ্রিয়তা কমতে থাকে। একই সঙ্গে কমে যায় তাদের ব্যবহারকারী। আর গুগল সেই যে শীর্ষস্থান দখল করেছে ২০১০ সালে তারপর টানা ৯ বছরে আর কেউ তাকে ছুঁতে পারেনি।

More News Of This Category