1. editor@islaminews.com : editorpost :
  2. jashimsarkar@gmail.com : jassemadmin :

সরকারি ব্যাংকের ভুয়া শাখা খুলতে গিয়ে ধরা!

এমন প্রতারণা ইতিহাসে বিরল! ভুয়া ঋণদান প্রতিষ্ঠান, সমিতি খুলে, অস্বাভাবিক মুনাফার লোভ দেখিয়ে সাধারণ মানুষের টাকা মেরে দেয়ার ঘটনা বাংলাদেশ, ভারতে অহরহ ঘটে। কিন্তু তাই বলে, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের আস্ত একটা শাখা খুলে প্রতারণা! এমন কাণ্ডই ঘটেছে ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্যে। তাও করেছে মাত্র ১৯ বছর বয়সের এক তরুণ।

অবশ্য ব্যাংকের কার্যক্রম শুরুর আগেই ধরা পড়েছে পুলিশের হাতে। জানা গেছে, ভারতের বৃহত্তম রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার (এসবিআই) শাখা খোলার চেষ্টা করেছিলেন ওই যুবক। শাখাটি খোলার প্রস্তুতি চলছিল তামিলনাড়ুর পানরুতি এলাকায়। নিজের বাড়ির দোতলাতেই ব্যাংক খোলার পরিকল্পনা করেছিলেন ওই যুবক।

টাকা জমা দেয়া ও তোলার চালান ছাপানো থেকে শুরু করে কম্পিউটার, প্রিন্টার, টাকা গোনার মেশিন পর্যন্ত কিনে সাজিয়ে ফেলেছিলেন তিনি। নকল সিলও বানিয়েছিলেন। শুধু বাকি ছিল সামনে স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার সাইনবোর্ড টানানো। জানা যায়, পানরুতিতে একটি এসবিআইর শাখা রয়েছে। ওই শাখারই এক গ্রাহক ম্যানেজারকে জানান এখানে একটি শাখা খোলার চেষ্টা চলছে।

ম্যানেজার পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ গিয়ে যুবককে আটক করে। ভুয়া সিল, চালান, টাকা গোনার মেশিনসহ যাবতীয় সরঞ্জাম জব্দ করা হয়। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ওই যুবকের বাবা এবং মা দু’জনেই এসবিআই-এ কর্মরত ছিলেন। বাবা কর্মরত অবস্থায় মারা যান। মা সম্প্রতি অবসর নিয়েছেন।

এরপর থেকেই ব্যাংকে চাকরি পাওয়ার চেষ্টা করছিলেন যুবক। কিন্তু বারবার ব্যর্থ হয়েছেন। পুলিশ বলছে, বাবা-মা ব্যাংকে চাকরি করার কারণে ব্যাংকের কাজকর্ম ও ডেকোরেশন সম্পর্কে তার মোটামুটি ধারণা ছিল। ব্যর্থতার ক্ষোভ থেকেই হয়তো ব্যাংক খোলার পরিকল্পনা করে। তবে ওই যুবকের বিরুদ্ধে কোনো প্রতারণার অভিযোগ নেই।

পানরুতি থানার ওসি কে আম্বেদকর বলেন, ওই যুবকের মায়ের চলাফেরা করতে সমস্যা হয়। তাই দোতলায় তেমন একটা উঠতেন না। বাড়ির দোতলায় ছেলে এসব কর্মকাণ্ড করছে তার তিনি কিছুই টের পাননি। পুলিশ বলছে, ওই যুবক খুব শান্ত ও দৃঢ়ভাবে বলেছেন, মুম্বাই থেকে অনুমোদনের অপেক্ষায় ছিলেন। অনুমোদন পেলেই সাইনবোর্ডও টাঙাতেন। সূত্র: ফিন্যানসিয়াল এক্সপ্রেস

More News Of This Category